ঝিনাইদহে যুবকের অন্ডকোষ কর্তন

99
gb

ঝিনাইদহ //

বুধবার মধ্যরাতে প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে বাইরে বের হন বাদল কুমার বিশ্বাস (৩৬)। উঠোন পার হয়ে কলপাড়ে আসা মাত্রই কে বা কারা তার চোখ বেধে ফেলে। এরপর তাকে একটি কলাক্ষেতে নিয়ে গিয়ে নির্দয় ভাবে দুইটি অন্ডকোষ কেটে দেয় র্দুর্বৃত্তরা। বৃহস্পতিবার দুপুরে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে এ ভাবেই নিজের অন্ডকোষ কাটার তথ্য জানান বাদল কুমার। বাদল ঝিনাইদহ সদর উপজেলার হরিশংকরপুর ইউনিয়নের পানামী গ্রামের কুন্ডুপাড়ার নির্মল কুন্ডু বিশ্বাসের ছেলে। গ্রামবাসি জানায় বাদল এক সময় গোয়ালপাড়া বাজারে মিষ্টির দোকানে কাজ করতো। দুই মাস আগে তার স্ত্রীর মৃত্যু হলে বাদল মানসিক রোগীতে পরিণত হয়। পিতা নির্মল কুন্ডু বিশ্বাস জানান, রাত ৩টার দিকে উঠে দেখি ঘরের দরাজ খোলা। এরপর বাদলকে খুজতে থাকি। রাতে তাকে কোথাও খুজে পায়নি। সকালে বাড়ির পাশের একটি কলা বাগানে রক্তাক্ত অবস্থায় বাদলকে দেখে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করি। কারা এবং কেন বাদলের অন্ডকোষ কেটে নিয়েছে তা নির্মল কুন্ডু বিশ্বাস জানাতে পারেনি।

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন তবে আপনি চাইলে অপ্ট-আউট করতে পারেন Accept আরও পড়ুন