ভূতের ছবি দেখে সিনেমা হলেই ব্রিটিশ নাগরিক মৃত্যু !

50

জিবি নিউজ 24 ডেস্ক//

সম্প্রতি মুক্তি পেয়েছে ভূতের ছবি ‘অ্যানাবেল কামস হোম’। আর এই ছবিটি দেখতে সিনেমা হলে গিয়েছিলেন ৭৭ বছর বয়সী ব্রিটিশ নাগরিক বার্নার্ড শ্যানিং। কিন্তু ছবি দেখে বাড়ি ফেরা হল না তার। ছবি দেখে সিনেমা হলেই মারা যান তিনি। ঘটনাটি ঘটেছে থাইল্যান্ডে।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা যায়, ছুটিতে ব্রিটেন থেকে থাইল্যান্ড গিয়েছিলেন বার্নার্ড শ্যানিং। পরে এক সন্ধ্যায় টিকিট কেটে ঢুকে যান সিনেমা হলে। সিনেমা নির্ধারিত সময়েই শুরু হল। শেষও হল নির্ধারিত সময়ে। কিন্তু সিনেমা দেখা শেষে উঠতে পারলেন না শ্যানিং। হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মারা যান তিনি।

সিনেমা হলে যাওয়া স্থানীয় এক নারী তাকে না উঠতে দেখে শিউরে ওঠেন। তিনিই সকলকে ডেকে আনেন। তার ভাষ্য, সিনেমা হলের সামনে কয়েকজনকে ডেকে ঘটনাটি বলেন তিনি। পরে তিনি ও সবাই মিলে ভিতরে যান। ওই বয়স্ক ভদ্রলোককে উদ্ধার করে কাছের হাসপাতালে ভর্তি করান। চিকিৎসকরা জানান, শ্যানিং সিনেমা দেখতে দেখতেই মারা গেছেন।

একজন প্রত্যক্ষদর্শী জানান, হলের প্রবেশদ্বারের কাছে কিছু লোক কর্মচারীদের সঙ্গে কথা বলছিলেন। তারা ওই একই হলে ছিলেন যেখানে ওই ব্যক্তি মারা যান। ওরা হতচকিত হয়ে গেছেন এইরকম একটা ঘটনায়। কিছু লোক ওই ব্যক্তির কাছেই বসেছিলেন। কী হচ্ছে তা দেখার জন্য কাউকে অনুমতি দেননি হলের কর্মচারীরা। ছবিও তুলতে দেওয়া হয়নি।

এর আগে ২০১৬ সালে ‘দ্য কনজিউরিং ২’ দেখতে গিয়ে অন্ধ্রপ্রদেশের একটি সিনেমা হলে মৃত্যু হয়েছিল ৬৫ বছর বয়সী এক ব্যক্তির। পরে জানা যায় হৃদযন্ত্র বিকল হয়ে তিনি মারা যান। ‘অ্যানাবেল কামস হোম’ দ্য কনজিউরিং ইউনিভার্সের ষষ্ঠ ছবি। ২০১৭ সালে ‘অ্যানাবেল: ক্রিয়েশন’-এর পর অ্যানাবেল সিরিজের এটি তৃতীয় ছবি

মন্তব্য
Loading...