হৃদরোগ প্রতিরোধে সচেতনতা সৃষ্টির জন্য রাজধানীতে পদযাত্রা

360
gb

হাকিকুল ইসলাম খোকন ||
জয়নুল হক শিকদার ওমেন্স মেডিক্যাল কলেজ এন্ড হসপিটাল এবং জয়নুল হক শিকদার কার্ডিয়াক কেয়ার এন্ড রিসার্চ সেন্টার হৃদরোগ প্রতিরোধে সচেতনতা সৃষ্টির জন্য বুধবার রাজধানীতে বর্ণাঢ্য পদযাত্রার আয়োজন করে। পদযাত্রা সকাল ৮টায় গুলশানের ১০৪ নং সড়কের শিকদার কার্ডিয়াক কেয়ারের সামনে থেকে শুরু হয়ে বিভিন্ন সড়ক ও গুলশান এভিনিউ প্রদক্ষিন করে। পদযাত্রায় শিকদার ওমেন্স মেডিক্যাল কলেজের ছাত্রী, ডাক্তার ও কর্মী এবং সাধারণ মানুষ অংশ নেন।


পদযাত্রার শুরুতে কার্ডিয়াক সার্জন ডা. লোকেশ বিএম বলেন, প্রতিবছর হৃদরোগে বিশ্বের ১ কোটি ৭৩ লাখ মানুষ মারা যান। মানুষকে সচেতন করে ধূমপান ও ‘জাঙ্ক ফুড’ পরিহার এবং ব্যায়াম, বিশেষ করে নিয়মিত হাটার মাধ্যমে ৮০ শতাংশ হৃদরোগের মৃত্যুরোধ করা সম্ভব। ‘ওয়ার্ল্ড হার্ট ফাউন্ডেশন’ মানুষকে হৃদরোগের বিষয়ে সচেতন করতে প্রতিবছর ২৯ সেপ্টেম্বর ‘ওয়ার্ল্ড হার্ট ডে’ পালন করে থাকে। এ বছরের প্রতিপাদ্য ছিল: ‘পাওয়ার দ্যা হার্ট’ বা হার্টের শক্তি বাড়াও।
জয়নুল হক শিকদার ওমেন্স মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষ ডা. মোহাম্মদ সাইজুদ্দিন করিম বলেন, হার্ট হচ্ছে শরীরের সব চেয়ে গুরুত্বপূর্ন অঙ্গ। ফলে সুস্থ হার্ট স্বাস্থ্যবান মানুষ তৈরি করতে পারে। এজন্য ধূমপান ও মদ্যপান ত্যাগ এবং শাক-সব্জি খেতে হবে ও ‘জাঙ্ক ফুড’ পরিহার করতে হবে।
‘ওয়ার্ল্ড হার্ট ডে’ পালনের অংশ হিসেবে অক্টোবর মাসে গুলশানের জয়নুল হক শিকদার কার্ডিয়াক কেয়ার এন্ড রিসার্চ সেন্টারে কার্ডিয়াক সার্জন ডা. লোকেশ বিএম হৃদরোগীদেরকে বিনামূল্যে পরামর্শ দেবেন। এছাড়া হৃদরোগীদেরকে আকর্ষনীয় হ্রাসকৃতমূল্যে চিকিৎসা সেবাও দেয়া হচ্ছে।