‘শরীর দেখানো পোশাক পরিধান করায়’ অভিনেত্রীকে কাঠগড়ায় দাঁড়

314
gb

জিবি নিউজ24 ডেস্ক //

আন্তর্জাতিক একটি চলচ্চিত্র উৎসবে ‘শরীর দেখানো পোশাক পরিধান করায়’ এক অভিনেত্রীকে কাঠগড়ায় দাঁড় করানো হয়েছে। রানিয়া ইউসেফ নামে মিশরীয় ওই অভিনেত্রীর নামে আবদেল সালাম এবং সামির সাবরি নামের দুই আইনজীবী। অভিযোগ প্রমাণিত হলে এই অভিনেত্রীর পাঁচ বছরের জেল হতে পারে বলে জানিয়েছেন আইনজীবীরা।

কায়রো আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে রানিয়া একটি স্বচ্ছ লেস লাগানো কালো কাপড়ের পোশাক পরেছিলেন। যাতে তার পায়ের পাতা থেকে উরু পর্যন্ত দেখা যাচ্ছিল। এতে ক্ষুব্ধ হয়েছেন অনেক মিশরীয়। অনেকে আবার অভিনেত্রীর পক্ষ নিয়ে বলেছেন, তিনি নিজের ইচ্ছামতো যেকোনো পোশাকই পরতে পারেন।

এ বিষয়ে আইনজীবী সামির সাবরির অভিযোগ, কায়রো আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে অভিনেত্রী রানিয়া যে ধরনের পোশাক পরেছিলেন সেটা মিশরের সামাজিক মূল্যবোধ, ঐতিহ্য ও নৈতিকতার পরিপন্থী ছিল। এতে চলচ্চিত্র উৎসব ও মিশরের নারীদের সুনাম ক্ষুণ্ণ হয়েছে।

রানিয়া অবশ্য এরই মধ্যে নিজের এই পোশাক বিতর্কের জন্য ক্ষমা চেয়েছেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে দেওয়া এক স্ট্যাটাসে ৪৪ বছর বয়সী এই অভিনেত্রী বলেন, পোশাকটি নিয়ে এত বিতর্ক তৈরি হবে জানলে তিনি এটা পরতেন না। তার পোশাক নির্বাচনটা ভুল ছিল বলেও উল্লেখ করেন রানিয়া।