ইনস্টাগ্রাম পোস্টে রোনালদোর বোন লিখেছেন, ‘সুবিচার চাই।

448
gb

জিবি নিউজ24 ডেস্ক //

পর্তুগিজ সুপারস্টার ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর জীবনে দুঃসময় যাচ্ছে্। তার নামের ওপর ইতিমধ্যে সিলমোহরের মতো বসে গেছে ধর্ষকের অপবাদ! জাতীয় দল থেকেও বাদ পড়েছেন। সুনামে কালি পড়তেই স্পনসরদের কপালে ভাঁজ। দিন যত এগিয়ে যাচ্ছে, ধর্ষণের অভিযোগে পরিস্থিতি আরও কঠিন হচ্ছে রোনালদোর জন্য।

বর্তমান ক্লাব জুভেন্তাস পাশে দাঁড়ালেও স্পনসররা পরিস্থিতির দিকে চোখ রাখছে। পরিস্থিতি কঠিন হলেই সরে দাঁড়াতে পারে স্পনসররা। কঠিন এই পরিস্থিতে পরিবারকে পাশে পাচ্ছেন রোনালদো। ধর্ষণ বিতর্কে সিআর সেভেনের বান্ধবী জর্জিনা মুখে কুলুট না আঁটলেও বোন কাতিয়া অ্যাভেইরো মুখ খুললেন। ইনস্টাগ্রাম পোস্টে রোনালদোর বোন লিখেছেন, ‘সুবিচার চাই।’

পপ তারকা অ্যাভেইরোর এই ইনস্টাগ্রাম পোস্ট নিয়েও বিতর্কও কম হচ্ছে না। অনেকই বলছেন ভাইয়ের পাশে দাঁড়াচ্ছে না বোন। সুবিচার বলতে সেক্ষেত্রে কী অভিযোগকারিনীর পক্ষে কথা বলছেন অ্যাভেইরো। প্রশ্ন কিন্তু উঠছেই। অ্যাভেইরো আরও লিখেছেন, ‘সৃষ্টিকর্তার কাছে সুবিচারের অপেক্ষায় রইলাম।’

উল্লেখ্য জার্মান ম্যাগাজিন স্পিগেল এ প্রকাশিত খবর অনুয়ায়ী, ২০০৯ সালে লাস ভেগাসের হোটেলে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের এক নারীর সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে ছিলেন পর্তুগিজ ফুটবলের পোস্টার বয়। বর্তমানে স্কুলশিক্ষিকা সেই নারী ক্রিশ্চিয়ানোর বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ এনেছেন।

অভিযোগকারিণী নারী দাবী করেছেন ধর্ষণের পর মোটা অঙ্কের টাকা দিয়ে তার মুখ বন্ধ করা হয়েছিল। ৯ বছর আগে আউট অফ দ্য কোর্ট সেই বোঝাপড়া নিয়েই এখন প্রশ্ন তুলে দিয়েছেন নারী। রোনালদো অবশ্য পুরো ঘটনাই অস্বীকার করে নিজেকে নির্দোষ বলে জানিয়েছেন। ঘটনায় দুজনের সম্মতি ছিল বলেই রোনালদোর আইনজীবী বিবৃতি দিয়েছেন।