চাঁপাইনবাবগঞ্জে মাদকসহ গ্রেপ্তার ১৮

116
gb

জাকির হোসেন পিংকু, চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি:
চাঁপাইনবাবগঞ্জে পুলিশ,বিজিবি ও র‌্যাবের মাদকবিরোধি অভিযানে ১৮ জনকেগ্রেপ্তার করা হয়েছে। মঙ্গলবার (১০জুলাই) ভোরে ও সোমবার (৯জুলাই) দুপুর থেকেরাত পর্যন্ত জেলার বিভিন্ন স্থানে পৃথক অভিযানে এই ১৮ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়।এদের ২ জনকে সদর থানা পুলিশ,১৫ জনকে র‌্যাব ও ১জনকে গ্রেপ্তার করে বিজিবি।এসময় জব্দ হয় ৮শ’ লিটার চোলাই মদ,১.৪কেজি গাঁজা,৭আ্যাম্পুলইয়াবা,৩শ’গ্রামহেরোইন,১০৩২ পিস ইয়াবা ও মাদকসেবন সরঞ্জাম। র‌্যাবের হাতেগ্রেপ্তার ১৫ জনকে ভ্রাম্যমাণ আদালত সাজা প্রদান করেছে। ৩ জনের বিরুদ্ধেনিয়মিত মামলা হয়েছে।
সদর থানার পরিদর্শক(অপারেশন) ইদ্রিস আলী জানান, মঙ্গলবার ভোর সাড়ে ৪টায় সদরউপজেলার উত্তর কৃঞ্চগোবিন্দপুর এলাকা থেকে ৩২ পিস ইয়াবাসহ গ্রেপ্তার হনদুজন। এরা হলেন, ওই এলাকার হযরত আলীর ছেলে রুহুল আমীন ও একই এলাকার মৃত.পেশকার আলীর ছেলে আলম। এদের বিরুদ্ধে সদর থানায় মামলা দিয়ে দুপুরে আদালতেপাঠানো হয়েছে।
চাঁপাইনবাবগঞ্জে র‌্যাব-৫ ক্যাম্প কমান্ডার স্কোয়াড্রন লীডার মোহাম্মদ সাইদআবদুল্লাহ আল মুরাদ জানান, সোমবার বেলা সাড়ে ১১টা থেকে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টাপর্যন্ত এক্সিকিউটিভ ম্যাজিষ্ট্রেট মাসুদুর রহমানকে নিয়ে জেলা সদরের বিভিন্নমাদক স্পটে অভিযান চালানো হয়। এসময় প্রকাশ্যে মাদকসেবনের দায়ে ১মাদকসেবী ও ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করা হয়। জব্দ হয় ৮শ’ লিটার চোলাই মদ,১.৪কেজি গাঁজা ও ৭ আ্যাম্পল ইনজেকশনসহ বিভিন্ন মাদকসেবন সামগ্রী। এসবম্যাজিষ্ট্রেটের উপস্থিতিতে ধ্বংস করা হয়। ভ্রাম্যমান আদালত এদের ১জনকে
৪মাস,১জনকে ৩মাস,১জনকে ২মাস, ১১ জনকে ১ মাস করে ও ১জনকে ১৫দিনেরকারাদন্ড প্রদান করে। এদের রাতেই কারাগারে পাঠানো হয়েছে।চাঁপাইনবাবগঞ্জে ৫৩’বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে.কর্ণেল সাজ্জাদসরোয়ার জানান,সোমবার সন্ধ্যা ৬টায় জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার ধুলাউড়িঘাএলাকা থেকে ২শ’পিস ইয়াবাসহ গ্রেপ্তার হন বারিকুল ইসলাম(৩০)। তিনশিবগঞ্জের বড়চক গ্রামের আবু তালেবের ছেলে। তার বিরুদ্ধে শিবগঞ্জ থানায়মামলা দিয়ে মঙ্গলবার দুপুরে আদালতে পাঠানো হয়েছে। অধিনায়ক আরও জানান,প্রায় একই সময় শিবগঞ্জের জংলীপাড়া এলাকা থেকে পরিত্যক্ত অবস্থায় ৮শ’পিসইয়াবা জব্দ হয়। তিনি জানান,এর আগে দুপুর দেড়টায় সদর উপজেলার পোলাডাঙ্গা
সীমান্তের ডিএমসি মাঠ থেকে পরিত্যক্ত অবস্থায় ৩শ’গ্রাম হেরোইন জব্দ হয়।পরিত্যক্ত ইয়াবা ও হেরোইন মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অফিসে জমা করা হয়েছে বলে বিজিবি জানিয়েছে। ##