সাতক্ষীরার কলারোয়া থেকে নারী ও শিশু সহ ১৩ রোহিঙ্গা উদ্ধার করেছে পুলিশ

286
gb

এম.শাহীন গোলদার,সাতক্ষীরা থেকে ||
সাতক্ষীরার কলারোয়া থেকে নারী ও শিশুসহ ১৩ রোহিঙ্গাকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। শুক্রবার দুপুরে কলারোয়া বাস ষ্ট্যান্ড এলাকা থেকে তাদের উদ্ধার করা হয়।
উদ্ধারকৃত রোহিঙ্গা শরণার্থীরা হলেন, মো: নবী হোসেন (২৭), মোছা:দিলদার বেগম (২১), তার ছেলে আব্দুল রহমান (০১), মো: করিম (২৫), মোছা: আমেনা বেগম (২০), তার ছেলে মো: আলী নূর (০১) তার স্বামী:-আব্দুল করিম, শহীদুল ইসলাম (২৪), জিনু আক্তার (২০), তার মেয়ে সাবিকুন্নাহার (০৩), সালমা খাতুন (২১), তার ছেলে নুর হোসেন (০২), তার ছেলে নুর হায়াত (০১) ও জমির হোসেন (১৮)।
তারা সবাই বার্মার আরাকান রাজ্যের মন্ডুই জেলার মেসেরেনাই থানার মিদ্দাপাড়া গ্রামের বাসিন্দা। গত ১৮ দিন আগে তারা সে দেশের সেনা সদস্যদের নির্যাতনের মুখে সম্ভ্রম হারিয়ে সীমান্ত পাড়ি দিয়ে বাংলাদেশ ভ‚খন্ডে প্রবেশ করেন। তারা কক্সবাজারে অবস্থিত রোহিঙ্গা শরনার্থী ক্যাম্পে যেতে চাই।
কলারোয়া থানার অফিসার ইনচার্জ বিপ্লব কুমার নাথ বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন,স্থানীয় সাংবাদিকদের মাধ্যমে জানতে পারেন প্রাণভয়ে মায়ানমার থেকে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের একটি দল কলারোয়া উপজেলা সদরে অবস্থান করছেন এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে থানার এসআই অমিত কুমার দাস অভিযান পরিচালনা করেন। এ সময় কলারোয়া সরকারি কলোজ বাসষ্টান্ড থেকে তাদের উদ্ধার করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। তিনি আরো জানান,উদ্ধারকৃতদের পুলিশ হেফাজতে রেখে জেলা পুলিশের মাধ্যমে কক্সবাজারে অবস্থিত রোহিঙ্গা শরনার্থী ক্যাম্পে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে।