কীটনাশক মুক্ত পরিবেশে কৃষি পণ্য উৎপাদন কৃষককের মুখে হাসি

এস.এম. সাইফুল ইসলাম কবির, বাগেরহাট ::
সারাদেশের সাড়া জাগানো জৈব পল্লী নামে ক্ষ্যাত বাগেরহাটের ফকিরহাট উপজেলার অর্গানিক বেতাগার উৎপাদিত পণ্য অচিরেই বিভাগীয় শহর ছাড়িয়ে রাজধানী সহ গুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন বাজার গুলিতে বাজার প্রক্রিয়াজাত করার প্রক্রিয়া চলছে। ফলে শতাধিক কৃষক তাদের উৎপাদিত মানসম্মত ও নিরাপদ কৃষি পণ্য বাজারজাত করণে আরো একধাপ এগিয়ে যেতে সম হয়েছেন। এধারা অব্যাহত থাকলে কৃষকরা যেমন লাভবান হবেন, তেমনী কৃষিতে নিরব বিপ্লব ঘটার সম্ভাবনা রয়েছে।

জানা গেছে, সারাদেশের সাড়া জাগানো জৈব পল্লী নামে ক্ষ্যাত  অর্গানিক বেতাগায় শতাধিক একর জমিতে কোন প্রকার কীটনাশক ছাড়াই শুধুমাত্র জৈব সার দিয়ে নানান প্রকার কৃষি পণ্য উৎপাদন ও বাজারজাত করন করেই চলছে। মানসম্মত কৃষি পণ্য উৎপাদন ও তা বাজারজাত করণে এ অঞ্চলে বিরল একটি দৃষ্টান্ত স্থাপন। তার পরেও ২৫০জন কৃষক ১শত একর জমিতে কোন প্রকার কীটনাশক ছাড়াই শুধুমাত্র জৈব সার প্রস্তুত করে পণ্য উৎপাদন ও বাজারজাত করায় মানসম্মত খাদ্য উৎপাদনের একটি মাইল ফলক। কৃষকরা বলেছেন, বেতাগা ইউপি চেয়ারম্যান স্বপন দাশ নিজ উদ্যোগে প্রথমে ৫০একর পরবর্তিতে ১শত একর জমিতে অর্গানিক পল্লী গড়ে তোলেন। সেখানে কীটনাশক মুক্ত পরিবেশে কৃষি পণ্য উৎপাদন করাই হচ্ছে এর মুল ল্য। সে মোতাবেক তাঁরা কোন প্রকার কীটনাশক ছাড়াই শুধু জৈব সার প্রস্তুত করে পণ্য উৎপাদন করেই থাকেন। আর এই পণ্য বাজারজাত করণের জন্য কৃষি বিভাগ অর্গানিক বেতাগার পার্শ্বে একটি মার্কেট নির্মান করে দিয়েছেন। সেই মার্কেটে তারা উৎপাদিত পণ্য বিক্রয় করেন।

এবার তাদের উৎপাদিত পণ্য এখন এলাকার বাজার ছাড়িয়ে অচিরেই বিভাগীয় শহরে প্রবেশ করা ছাড়াই রাজধানীর বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ  বাজারে রপ্তানী হতে যাচ্ছে। এ ব্যাপারে স্বশাসিত ইউনিয়ন পরিষদ এ্যাডভোকেসি গ্রুপ অব বাংলাদেশ এর প্রেসিডেন্ট ও বেতাগা ইউপি চেয়ারম্যান স্বপন দাশ এর সাথে আলাপ করা হলে তিনি  বলেন, আমরা খাদ্যে সয়ংসম্পূর্নতা অর্জন করলেও নিরাপদ খাদ্য উৎপাদন বা বাজারজাত করনে অনেকটা পিছিয়ে রয়েছি। কীটনাশক মুক্ত পরিবেশে ও নিরাপদ খাদ্য উৎপাদন করতে আমরা অর্গানিক বেতাগা গড়ে তুলেছি।
উপ-সহকারী কৃষি অফিসার প্রদিপ কুমার মন্ডল ও বেতাগা ইউনিয়ন মৎস্য ও কৃষি সংক্রান্ত স্থায়ী কমিটির সভাপতি মোঃ ইউনুস আলী শেখ  বলেন, শনিবার সকালে বিভাগীয় শহর খুলনা হতে কৃষি পল্লী নামক একটি সংস্থা মোঃ আবির হোসেন ও মেহেদী হাসান নামের দুইজন ব্যক্তি অর্গানিক বেতাগা পরির্দশন করে গেছেন। তারা অর্গানিক বেতাগার সকল উৎপাদিত নিরাপদ পণ্য খুলনার বাজার গুলিতে বিক্রয় করার সিদ্ধান্ত গ্রহন করেছেন।

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন তবে আপনি চাইলে অপ্ট-আউট করতে পারেন Accept আরও পড়ুন