যুক্তরাজ্যে ভিজিট মাই মস্ক’ উপলক্ষে বিভিন্ন মসজিদে ননমুসলিমদের সমাগম

395
gb

যুক্তরাজ্যে দেশজুড়ে পালিত ‘ভিজিট মাই মস্ক’ অপেন ডে উপলক্ষে ১৮ই ফেব্রুয়ারি রোববার মসজিদগুলো নন-মুসলিম নারী পুরুষ ও শিশু কিশোরদের পদচারণায় মুখরিত হয়ে ওঠেছিলো। ওইদিন প্রায় দুইশ’ মসজিদ নন-মুসলিমদের জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া হয়। মসজিদগুলোতে নারী পুরুষের ঢল নামে। বিশেষ করে ইউরোপের অন্যতম বৃহত্তর ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান ইস্ট লন্ডন মসজিদে নন মুসলিমদের উপচেপড়া ভীড় ছিলো। সারাদিনই দলে দলে আসতে থাকেন খৃস্টান, ইহুদীসহ বিভিন্ন ধর্মাবলম্বী মানুষ। তাঁরা মসজিদটি ঘুরে দেখেন। মসজিদ যে উপসনার স্থান, এখানে গোপনীয় কোনো কর্মকান্ড পরিচালিত হয়না- এ ধরনেরই একটি স্বচ্ছ ধারণা নিয়ে ফিরে যান তারা।

অন্যান্য মসজিদের মতো ইস্ট লন্ডন মসজিদ সকাল ১১টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত উন্মুক্ত ছিলো। অপেন ডে উপলক্ষে এলএমসির নিচতলায় মসজিদ, ইসলাম ও মুসলমানদের ইতিহাস-ঐতিহ্য নিয়ে একটি প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়। হলের প্রবেশদ্বারে প্রস্তুত রাখা হয় লন্ডন ইস্ট একাডেমির একদল হাফিজ ছাত্র। তাঁরা থেমে থেমে সারাদিনই নন মুসলিম ভিজিটরদের পবিত্র কুরআন থেকে তেলাওয়াত করিয়ে শুনান। আগত নারী-পুরুষের মধ্যে অনেককেই তন্ময়চিত্তে দাঁড়িয়ে তেলাওয়াত শুনতে দেখা যায়। এরপর আগতদের চা-কেক দিয়ে আপ্যায়ন করা হয়। প্রদর্শনী হল থেকে প্রতি পনেরো মিনিট পর পর একজন সুদক্ষ গাইডের তদারকিতে একটি করে গ্রুপ মসজিদের ভেতরে মেইন হলে নিয়ে যাওয়া হয়। ভেতরে নিয়ে যাওয়ার আগে ইস্ট লন্ডন মসজিদ সম্পর্কে ৮ মিনিটের একটি ডকুমেন্টারি দেখানো হয়। এরপর ভেতরে নিয়ে গিয়ে মুল মসজিদ, ভিজিটিং সেন্টার ও অজুখানা দেখানো হয়। এ এসময় নন মুসলিমদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন ইমাম ও গাইডগন।

আগতরা দেখতে পারেন মুসলমনরা কীভাবে নামাজ পড়েন, নামাজের আগে কীভাবে অজু করতে হয়। এসময় ইসলাম সম্পর্কে জানতে ও বুঝতে তাদের মধ্যে বেশ আগ্রহ পরিলক্ষিত হয়।
জোহর ও আসরের নামাজের সময় মারিয়াম সেন্টারে অবস্থিত নন-মুসলিম ভিজিটিং সেন্টার খুলে দেয়া হয়। আগতরা সেখানে দাঁড়িয়ে নামাজ পড়ার দৃশ্য অবলোকন করেন। মাথায় ওড়না পরে অত্যন্ত মার্জিত পোশাকে নারীরা মসজিদ ঘুরে দেখেন।
দিনব্যাপী অপেন ডে চলাকালে বিভিন্ন কর্মসূচিতে অংশ নেন ইস্ট লন্ডন মস্ক এন্ড লন্ডন মুসলিম সেন্টারের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান, সেক্রেটারি আইয়ূব খান, ইমাম ও খতীব শায়খ আব্দুল কাইয়ূম, ডাইরেক্টর দেলওয়ার খান, মাওলানা শাফিউর রহমান, ইসলাম অ্যাওয়ার্নেস প্রজেক্টের প্রতিনিধি মোঃ আসলাম উদ্দিন প্রমুখ।

ভিজিট মাই মস্ক ডে সম্পর্কে ইস্ট লন্ডন মস্ক ও লন্ডন মুসলিম সেন্টারের সিইও নজমুল হোসাইন বলেন, আমরা সবসময়ই ধর্মে বিশ্বাসী-অবিশ্বাসী সকল মানুষকে ইস্ট লন্ডন মসজিদে স্বাগত জানিয়ে থাকি। আমরা আশাবাদী, ভিজিট মাই মস্কের আয়োজন ইসলাম ও মুসলমানদের সম্পর্কে যে কিছু ভুলবুঝাবুঝি আছে তা দূর করতে সহায়ক ভুমিকা রাখবে। তিনি বলেন, আমরা যতবেশি একজন আরেকজন সম্পর্কে জানতে পারবো, তত বেশি আমাদের পারস্পারিক সম্পর্কের উন্নতি হবে এবং বিশ্বাস সদৃঢ় হবে। উল্লেখ্য, ২০১৫ সালে মুসলিম কাউন্সিল অব বৃটেন (এমসিবি) ভিজিট মাই মস্ক কর্মসূচির উদ্বোধন করে। প্রথম বছরই নন-মুসলিমদের পক্ষ থেকে ব্যাপক সাড়া পাওয়া যায়। ওই বছর যুক্তরাজ্যের ২০টি মসজিদ এই কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করে। পরের বছর দ্বিতীয় অপেন ডে’তে অংশগ্রহণ করে ৮০টি মসজিদ। আর গত বছর তৃতীয়বারের মতো আয়োজিত এই কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করে দেড়-শতাধিক মসজিদ। ওই বছর ৩৫ থেকে ৪০ হাজার মুসলিম ও নন-মসলিম মসজিদগুলো পরিদর্শন করেন।