ঝিনাইদহে এবার ইংরেজি বইয়ে বাংলা কবিতা !

630
gb

ঝিনাইদহ জেলা সংবাদদাতাঃ

মাধ্যমিক শ্রেনীতে সরকারী ভাবে বিতরণকৃত বই নিয়ে শিক্ষার্থীরা বিপাকে পড়েছে। একের পর এক বইগুলোতে অসঙ্গতি ধরা পড়ছে। ধর্ম বইয়ে অংক আবার ইংরেজি বইয়ে বাংলা কবিতা দেখে শিক্ষার্থীদের মাঝে ক্ষোভ ছড়িয়ে পড়েছে। ঝিনাইদহের বিভিন্ন মাধ্যমিক ও নি¤œ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে এ ধরণের ভুলে ভরা বই বিতরণ করা হচ্ছে। কিন্তু স্কুল কর্তৃপক্ষ দ্রুত কোন প্রতিকার পাচ্ছে না। জেলার মহেশপুর উপজেলায় বিভিন্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে সপ্তম শ্রেণীর ইসলাম ও নৈতিক শিক্ষা বইয়ে অংক তুলে দেওয়ার পর এবার ষষ্ঠ শ্রেনীর ইংরেজি বইয়ে বাংলা কবিতা মিলেছে। ঝিনাইদহ সদর উপজেলার বৈডাঙ্গা নি¤œ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ষষ্ঠ শ্রেনীর ক্লাসে ইংরেজি বইতে বাংলা কবিতা পাওয়া গেছে। স্কুলের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক শাহানুর আলম খবরের সত্যতা স্বীকার করে বলেন, শুধু এক পৃষ্ঠা দুই পৃষ্ঠা নয়। ষষ্ঠ শ্রেনীর ইংরেজি বইয়ের ৫৩ পৃষ্ঠা থেকে ৫৯ পৃষ্ঠা পর্যন্ত বাংলা কবিতা রয়েছে। বছরের শুরুতে নতুন বই পাওয়া শিক্ষার্থীরা এ ধরণের বড় ধরণের অসঙ্গতি দেখে আতংকিত হয়ে পড়েছে। ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক আরো জানান, আমার স্কুলের অষ্টম শ্রেনীর অংকের একাধিক বইয়ে ৪/৫ পৃষ্ঠা সাদা পাওয়া গেছে। সেখানে অংকের কোন আল্পনা নেই। ওই স্কুলের ষষ্ঠ শ্রেনীর শিক্ষার্থী সুমাইয়া খাতুন ও প্রশান্ত কুমার জানান, তারা এতোদিন ধরে জেনে আসছে  ইয়ংরেজি বইতে শুধু ইংরেজি গল্প ও কবিতা থাকে। বই হাতে পেয়ে দেখে তাদের ইংরেজি বইতে বাংলা কবিতা রয়েছে। এতে তারা বিস্মিত হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে ঝিনাইদহ জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মোকছেদুল ইসলাম জানান, মহেশপুর উপজেলায় বিতরণকৃত ধর্ম বইতে অংক থাকার কথা শুনেছি। কিন্তু ঝিনাইদহের বৈডাঙ্গা স্কুলে ইংরেজি বইতে বাংলা কবিতার কথা কেও জানায়নি। তিনি বলেন, যদি এটা হয়ে থাকে তাহলে দ্রুত বইগুলো ফেরৎ নিয়ে নির্ভুল বই দেওয়া হবে।