বিজেপিকে চ্যালেঞ্জ প্রিয়াঙ্কার

32
gb
5

জিবিনিউজ 24 ডেস্ক //

ভারতের ক্ষমতাসীন বিজেপি সরকারকে সরাসরি চ্যালেঞ্জ ছুড়ে নিজের বংশ পরিচয় মনে করিয়ে দিলেন কংগ্রেস নেত্রী ও দলের সাধারণ সম্পাদক প্রিয়াঙ্কা গান্ধী।

উত্তরপ্রদেশে যোগী আদিত্যনাথের সরকারের কাজকর্ম নিয়ে প্রশ্ন তোলায় তার বিরুদ্ধে একাধিক দফতরের তৎপরতা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আমি ইন্দিরা গান্ধীর নাতনি। কিছু বিরোধী নেতা-নেত্রীর মতো বিজেপির অঘোষিত মুখপাত্র নই। সরকার আমার বিরুদ্ধে যে পদক্ষেপ নেয়ার নিক। অন্যায় অব্যবস্থাপনার বিরুদ্ধে আমার মুখ হুমকি দিয়ে বন্ধ করা যাবে না। সত্য কথা আমি বলবোই।

ভারতের বেশিরভাগ রাজ্যের মতোই উত্তরপ্রদেশেও ভয়াবহ থাবা বসিয়েছে করোনা। কিন্তু মহামারী মোকাবেলায় রাজ্য সরকারের নানা অনিয়ম ও অব্যবস্থাপনার অভিযোগ ওঠেছে। এর মধ্যে কানপুরে একটি সরকারি হোমে সম্প্রতি বেশ কয়েক জন কিশোরী করোনা আক্রান্ত হয়। তাদের কয়েকজন আবার গর্ভবতী বলেও খবর বের হয়য়।

এ নিয়ে গত কয়েক দিন ধরেই উত্তরপ্রদেশের মূখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ সরকারকে সমালোচনা করে আসছেন প্রিয়াঙ্কা। একাধিক সংবাদ মাধ্যমের রিপোর্ট তুলে তিনি জানান, উত্তরপ্রদেশে ভাইরাস পরিস্থিতি উদ্বেগজনক। কানপুর সরকারি হোমে ৫৭ জন কিশোরী আক্রান্ত। এসব বিষয়ে সমালোচনা উঠতেই প্রিয়াঙ্কার বিরুদ্ধে সরব হয়ে ওঠে যোগী সরকার। কংগ্রেস নেত্রীর বিরুদ্ধে অভিযোগ ওঠে, পুরো সত্য না জেনেই, ওই সরকারি হোম নিয়ে প্রিয়াঙ্কা বিভ্রান্তিকর তথ্য ছড়াচ্ছেন।

এরই জেরেই শুক্রবার প্রিয়াংকাকে নোটিস দেয় উত্তরপ্রদেশ চাইল্ড রাইটস প্যানেল। তিন দিনের মধ্যে তার কাছ থেকে জবাব চাওয়া হয়।

এই নোটিশের প্রতিবাদের ফুঁসে ওঠেছেন প্রিয়াঙ্কা। টুইটারে তিনি লিখেছেন, জনগণের সেবক হিসেবে উত্তরপ্রদেশের মানুষের কাছে দায়বদ্ধ আমি। সত্যটা সামনে আনা আমার কর্তব্য, বিজেপি সরকারের তথ্য প্রচার করা নয়।

উত্তরপ্রদেশ সরকার তাকে হুমকি দিচ্ছে বলেও অভিযোগ করে প্রিয়াঙ্কা বলেন, উত্তরপ্রদেশ সরকার বিভিন্ন দফতরের মাধ্যমে আমাকে হুমকি দিয়ে খামোখা সময় নষ্ট করছে। যা পারে করুক ওরা। সত্যিটা সামনে তুলে আনবই।

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন তবে আপনি চাইলে অপ্ট-আউট করতে পারেন Accept আরও পড়ুন