ইংল্যান্ডে ৪ জুলাই থেকে মসজিদ, লাইব্রেরি, সিনেমা চালু হচ্ছে

46
gb

জিবিনিউজ 24 ডেস্ক //

ইংল্যান্ডে ৪ জুলাই থেকে আরো শিথিল হচ্ছে লকডাউন। ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন আজ মঙ্গলবার পার্লামেন্টে তার বক্তব্যে বেশ কিছু বিষয়ে শিথিলতার কথা ঘোষণাদেন।
এতে সামাজিক দূরত্ব ২ মিটারের পরিবর্তে ১ মিটারে নির্ধারন করা হয়েছে। এটা শুধু ইংল্যান্ডের বেলায় প্রযোজ্য। স্কটল্যান্ড,ওয়েলস ও উত্তর আয়ারল্যান্ডে ২ মিটার দূরত্ব বলবৎ থাকবে।

জনসন ব্যবসায়িক নেতা এবং নিজ দলের সদস্যদের কাছ থেকে লকডাউন তুলে নেওয়ার জন্য চাপের মুখে ছিলেন। কিন্তু করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ধাক্কায় পড়ার আশঙ্কায় তিনি লকডাউন শিথিল না করার পক্ষপাতি ছিলেন।

মঙ্গলবার জনসন বলেন, ভাইরাস সংক্রমণের হার কমছে। কোভিড-১৯ এর দ্বিতীয় পর্যায় শুরুর ভয়ও কম বলেই মনে হচ্ছে। এ কারণে তিনি ব্যবসা-বাণিজ্য আবার চালু করতে পারেন এবং ইংল্যান্ডের জীবন স্বাভাবিক পর্যায়ে নিয়ে আসার চেষ্টা করতে পারেন।

সামাজিক দূরত্বের নতুন নিয়মে মানুষ একে অপরের থেকে ১ মিটার দূরত্ব বজায় রাখতে পারবে। তবে ফেস মাস্ক পরা, হাত বারবার ধোয়ার মত নিয়মগুলো মেনে চলতে হবে।

৪ জুলাই থেকে পুনরায় সেসকল ভেন্যুগুলো চালু হচ্ছে
পাব, বারস, রেস্টুরেন্ট কিন্তু কেবলমাত্র ইনডোর টেবিল সার্ভিস দিতে হবে। আর মালিককে কাস্টমারদের যোগাযোগের জন্য কন্ট্রাক্ট ডিটেইলস রাখতে হবে যাতে করে কাস্টমারকে কন্ট্রাক্ট ট্রাকিং করা যায়।

হোটেল, হলিডে অ্যাপার্টমেন্ট, ক্যাম্পসাইট এবং কেরাভান পার্কগুলো চালু করা যাবে। তবে অবশ্যই পরিস্কার পরিচ্ছন্ন রাখতে হবে ভালো করে।
থিয়েটার এবং মিউজিক হল খুলবে কিন্তু লাইভ পারফরম্যান্স করা যাবে না।

বিয়ের অনুষ্ঠানে ৩০ জনের বেশি উপস্থিতি রাখা যাবে না। শর্তসাপেক্ষে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে মসজিদসহ ধর্মীয় উপাসনালয়গুলো চালু করা যাবে। তবে উপাসনালয়ে গান পরিবেশন করা যাবে না।

হেয়ার সেলুন চালু করা যাবে তবে যথেস্ট পরিমান প্রতিরক্ষামূলক ব্যবস্থা রাখতে হবে।

সিনেমা, জাদুঘর, গ্যালারী, ফানফেয়ারস, থিম পার্ক, অ্যাডভেঞ্চার পার্ক, স্কেটিং রিংকস এবং মডেল ভিলেজ চালু করা যাবে।
চিড়িয়াখান, অ্যাকুরিয়াম, খামার, সাফারি পার্ক এবং ওয়াইল্ডলাইফ সেন্টার চালু করা যাবে।

মঙ্গলবার প্রতিদিনের মতো সর্ব শেষ আপডেট ও সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি বলেন আগামী কাল থেকে আর কোন প্রেস ব্রিফিং জরুরী প্রয়োজন ছাড়া করা হবে না । এ সময় প্রধানমন্ত্রীর সাথে ছিলেন -চীফ মেডিকেল এডভাইজার প্রফেসর ক্রিস হুইটি ও সাইন্টিফিক এডভাইজার স্যার পেট্রিক ভ্যালেন্স উপস্থিত ছিলেন।

প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন যে- সুইমিংপুল , নাইট ক্লাব, ক্যাসিনো খোলা যাবে না। আগামী সেপ্টেম্বর থেকে সব স্কুল খোলা হবে । বাইরে গেলে মাস্ক পরতে হবে।

 

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন তবে আপনি চাইলে অপ্ট-আউট করতে পারেন Accept আরও পড়ুন