গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের টেস্ট কিটের উদ্ভাবক ড. ফিরোজ দম্পতি করোনায় আক্রান্ত

44
gb

জিবিনিউজ 24 ডেস্ক //

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের র‌্যাপিড টেস্ট কিট উদ্ভাবক দলের অন্যতম বিজ্ঞানী এবং নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (নোবিপ্রবি) অণুজীববিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. ফিরোজ আহমেদ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন । সঙ্গে তার স্ত্রীও আক্রান্ত হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (৪ জুন) ড. ফিরোজ আহমেদ নিজেই বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

 

ড. ফিরোজ আহমেদের স্ত্রী ডা. সামিনা সুলতানা একজন বিশেষজ্ঞ গাইনি চিকিৎসক।

করোনা সংক্রমিত হয়ে ফিরোজ আহমেদ আজ নবম দিন এবং তার স্ত্রী সামিনা সুলতানা সপ্তম দিন পার করছেন। তারা উভয়েই ঢাকা মেডিকেল কলেজের অধ্যাপক তারেক আলম এবং বাংলাদেশ মেডিকেল কলেজের অধ্যাপক রেদোয়ানুর রহমানের সার্বিক তত্ত্বাবধানে নিজ বাসায় চিকিৎসা নিচ্ছেন। প্রথমে তাদের গণস্বাস্থ্যের কিটে নমুনা পরীক্ষায় করোনা পজিটিভ আসলে পরবর্তীতে পিসিআর ল্যাবের পরীক্ষাতেও একই ফল আসে।

এ বিষয়ে ড. ফিরোজ আহমেদ বলেন, ‘করোনা উপসর্গ দেখা দিলে ২৬ মে গণস্বাস্থ্যের র‌্যাপিড টেস্টিং কিটে নমুনা পরীক্ষা করে করোনা পজিটিভ রেজাল্ট আসে। পরবর্তীতে পিসিআর ল্যাবে পরীক্ষাতেও আমি ও আমার স্ত্রী সামিনা সুলতানার একই ফলাফল পাই।’

সর্বশেষ অবস্থা সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘শারীরিক ও মানসিকভাবে আমি ও আমার স্ত্রী শক্ত আছি। জটিল কোনো উপসর্গ নেই এখনো। হালকা জ্বর এবং ডায়রিয়া আছে। তবে কাশি নেই। সবাই আমাদের সুস্থতার জন্য দোয়া করবেন।’

প্রসঙ্গত, ড. ফিরোজ আহমেদ গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের উদ্ভাবিত র‌্যাপিড টেস্টিং কিটের অন্যতম উদ্ভাবক। ড. বিজন কুমার শীলের নেতৃত্বে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রে স্বল্প সময় ও স্বল্প মূল্যে করোনা শনাক্তকরণ কিট উদ্ভাবন কাজের সঙ্গে প্রথম থেকেই যুক্ত ছিলেন ফিরোজ আহমেদ।

এ ছাড়া ড. ফিরোজ আহমেদ নোবিপ্রবির মালেক উকিল হলের প্রভোস্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। বাংলাদেশ গ্র্যাজুয়েট মাইক্রোবায়োলজি সোসাইটির সভাপতি হিসেবেও কাজ করছেন তিনি।

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন তবে আপনি চাইলে অপ্ট-আউট করতে পারেন Accept আরও পড়ুন