১২ ডিসেম্বর ‘বিয়ে’ করছেন বিরাট-আনুশকা?

298
gb

জিবিনিউজ24 ডেস্ক:বিরাট-আনুশকার বিয়ের তথ্য ফাঁস! অবশেষে গুঞ্জনই সত্যি হচ্ছে। মিলে যাচ্ছে নেটিজেনদের ধারণা। বিয়ে করছেন বিরাট-আনুশকা। আগামী ১২ ডিসেম্বর ‘মিলানে মিলন’ হচ্ছে বিরাট-আনুশকার! ভারত তথা বিশ্ব গণমাধ্যমে এই খবরই শোনা যাচ্ছে।

সুরিন্দর সাহানি আর তানির লাভ-স্টোরি মনে পড়ছে? ২০০৮ সালে মুক্তি পাওয়া ‘রব নে বনাদি জোড়ি’ ছবিতে দেখানো হয়েছিল সুরি-তানির প্রেম। ‘সুরিন্দর’-এর ভূমিকায় শাহরুখ খান এবং ‘তানি’ আনুশকা শর্মা অভিনয়ে নজর কেড়েছিলেন দর্শকদের।

শাহরুখ তো বলিউডের রোম্যান্সিং কিং। তবে আনুশকাও যে আসলে জমিয়ে প্রেমটা করতে পারেন, সে কথারই ইঙ্গিত ছিল সেই ছবিতে। অন্তত শেষ কয়েকদিন ধরে বিরাট কোহলি ও আনুশকা শর্মার বিয়ের গুঞ্জন শুরু হওয়ার পর, সেই ইঙ্গিত যেন আরো স্পষ্ট হচ্ছে।

ভারতীয় ক্রিকেট অধিনায়ক বিরাট কোহলি এবং বলিউড ডিভা আনুশকা শর্মার বিয়ে নিয়ে ভারতীয় মিডিয়ায় এখন তোলপাড়। সবচেয়ে মজার বিষয় হল, বিয়ের জল্পনা ক্রমশ রোম্যান্টিক কমেডি থেকে সাসপেন্সে পরিণত হচ্ছে।

বিয়েটা কি আদৌ হচ্ছে? যেন এই প্রশ্নটাই এখন ‘নেশন ওয়ান্টস টু নো’!

যাক গে, সে সবে না গিয়ে, একটা তারিখে মন দেওয়া যাক। বিরাট-আনুশকার বিয়ের তারিখ নাকি ঠিক হয়েছে ১২ ডিসেম্বর। জানেন, ৯ বছর আগে এই ১২ ডিসেম্বরেই মুক্তি পেয়েছিল ‘রব নে বনাদি জোড়ি’! খাঁটি সমাপতন? নাকি পরিকল্পনা করে বাস্তবের সুরি-তানির (বিরাট-আনুশকা) মিলন?

আসলে দুই সেলিব্রিটির ফ্যানরা সিলভার স্ক্রিনের রব নে বনাদি’র সঙ্গে বাস্তবের জোড়িকে মেলাতে চাইছেন। তাই হয়তো উঠে আসছে এই ১২ ডিসেম্বরের কথা।

আনুশকার কেরিয়ারের অন্যতম সেরা ছবি ‘রব নে বনাদি জোড়ি’। সে কারণেই হয়তো তাঁর বিয়ের দিন হিসেবেও ‘রব নে বনাদি জোড়ি’র মুক্তির দিনকেই বেছে নেওয়া। বিয়ের তারিখের এমন বিশেষ দিন নিয়ে শুরু হয়েছে এমনই গুঞ্জন।

যদিও বিরাট-আনুশকার বিয়ে নিয়ে নিশ্চিত এখনো কিছুই জানা যায়নি।