কুলাউড়া পৌরবাসীর পাশে অধ্যক্ষ সিপার উদ্দিন আহমদ

232
gb
1

 নিজস্ব প্রতিবেদক, কুলাউড়া ||

করোনাভাইরাসের কারণে কর্মহীন হয়ে পড়েছে বেশীর ভাগ মানুষ। দিনমজুর, শ্রমিক শ্রেণীর মানুষেরা পড়েছে সবচেয়ে বেশি বিপাকে। দিন এনে দিন খায় এমন-মানুষ এখন খেয়ে বেঁচে থাকাই দায়। দু’বেলা খাবারের সন্ধানে সরকারের ও সমাজের বিত্তবানদের দিকে তাকিয়ে থাকেন এসব কর্মহীন মানুষেরা। এমন দূর্যোগময় পরিস্থিতিতে কুলাউড়া পৌর এলাকায় বসবাসকারী কর্মহীন এসব অসহায় মানুষের পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন সাপ্তাহিক কুলাউড়ার সংলাপের সম্পাদক, উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতা ও কুলাউড়া পৌরসভার মেয়র প্রার্থী অধ্যক্ষ সিপার উদ্দিন আহমদ।তিনি করোনা পরিস্থিতির শুরু থেকে কুলাউড়া পৌরসভার বিভিন্ন ওয়ার্ডে কর্মহীন দুস্থ মানুষদের আর্থিক ও খাদ্য সহায়তা করে যাচ্ছেন। এরই ধারাবাহিকতায় আজ শনিবার (০৯ মে) বিকেলে পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ডের বাদে-মনসুর গ্রামে ৪শতাধীক পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন তিনি। এই খাদ্য সামগ্রী বিতরনে প্রধান অতিথি ছিলেন মৌলভীবাজার জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মিছবাহুর রহমান, বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাড রাধাপদ দে সজল, জেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাধারণ সম্পাদক মোজাম্মেল হক রাব্বী। পর্যায়ক্রমে পৌরসভার প্রতিটি ওয়ার্ডের কর্মহীনদের ঘরে ঘরে গিয়ে ত্রাণ সামগ্রী (উপহার) পৌঁছে দেয়া হবে। দুর্যোগ সময়ে অসহায় দরিদ্রদের পাশে থাকায় তার প্রতি সন্তুষ্ট প্রকাশ করেছেন এলাকাবাসী। খাদ্য সামগ্রী বিতরণকালে অধ্যক্ষ সিপার উদ্দিন আহমদ তাঁর বক্তৃতায় বলেন, দেশের মানুষ এখন কঠিন সময় পার করছেন। করোনাভাইরাস মোকাবেলায় কাজ করে যাচ্ছে সরকার ও সমাজের বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষজন। এ লক্ষ্যেই কর্মহীন মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য কুলাউড়া পৌরসভায় বসবাসকারী কর্মহীন মানুষের মাঝে খাবার সামগ্রী বিতরণ করা হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনা অনুযায়ী দিনমজুর, শ্রমিক, দুস্থ ও অসহায়দের পাশে এসে দাঁড়িয়েছি। তিনি বলেন, কুলাউড়ার পৌরসভার প্রতিটি ওয়ার্ডে কর্মহীন, হতদরিদ্র ও ছিন্নমূল অসহায় মানুষের মাঝে সাধ্যমত খাবার সামগ্রী বিতরণ করে যাচ্ছি। প্রায় দুই হাজার ৫শ পরিবারের মাঝে খাবার সামগ্রী বিতরণ করবো। পর্যায়ক্রমে এ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে বলেও জানান তিনি। প্রধান অতিথি মৌলভীবাজার জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মিছবাহুর রহমান, অধ্যক্ষ সিপার উদ্দিন আহমদের কাজের ভূয়সী প্রসংশা করে বক্তৃতায় বলেন, সিপার যেমন একজন ভালো মনের মানুষ, তেমনি একজন ভালো রাজনীতিবিদ। সব সময় মানুষের কল্যাণকর কাজের সাথে জড়িত থাকে। তাই যদি এমন একজন ভাল মানুষ কে ভাল জায়গায় বসাতে পারেন তাহলে সমাজ উপকৃত হবে। সাথে সাথে খারাপ লোক কে সবাই বয়কট করতে হবে। এসময় অন্যানদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতা সাংবাদিক কামাল হাসান, পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি খোরশেদ আলী, সম্পাদক শ্রী গৌরা দে, ইউপি চেয়ারম্যান প্রভাষক মমদুদ হোসেন, ভাটেরা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক বদরুল আলম সিদ্দিকী (নানু), উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাধারণ সম্পাদক এহসান আহমদ টিপু, ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আবু সায়হাম রুমেল-সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন তবে আপনি চাইলে অপ্ট-আউট করতে পারেন Accept আরও পড়ুন