দরিদ্র মানুষের খাদ্য নিরাপত্তার জন্য ব্যবস্থা গ্রহন করুন : এলডিপি

79
gb
5

 

লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি-এলডিপি সভাপতি আবদুল করিম আব্বাসী ও মহাসচিব শাহাদাত হোসেন সেলিম আয় বন্ধ হওয়া বা কমে যাওয়া দরিদ্র মানুষের খাদ্য নিরাপত্তার যাতে সমস্যা না হয় সেজন্য জরুরি ভিত্তিতে ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

মঙ্গলবার (৩১ মার্চ) গণমাধ্যমে প্রেরিত এক বিবৃতিতে নেতৃদ্বয় এ আহ্বান জানান।

তারা বলেন, করোনার প্রভাব দেশের অর্থনীতিতে পড়তে শুরু করেছে। নির্ধারিত বেতনভুক্ত চাকরিজীবী ও মুদি দোকানি ছাড়া অন্যদের আয় কমে যাচ্ছে। করোনায় একের পর এক মত্যুর খবর ও আক্রান্তের খবর প্রকাশের পরই আত্মরক্ষার পথ খুঁজে নিচ্ছে মানুষ। নিতান্ত প্রয়োজন ছাড়া ঘরের বাইরে বের হচ্ছে না।

নেতৃদ্বয় বলেন, এরই মধ্যে সরকার ঘোষিত সাধারণ ছুটি চলছে। ফলে রাজধানীর রাস্তাঘাট প্রায় ফাঁকা। অনেক ক্ষেত্রেই পরিস্থিতি আরও খারাপ। অন্যদিকে নানা গুজবের কারণে, নানা আশঙ্কায় চাল, ডাল, তেল, লবণসহ নিত্যপণ্য মজুদ বাড়িয়েছে অনেক পরিবার। বাজারে নিত্যপণ্যসহ সবকিছুরই মূল্য ক্রমান্বয়ে বৃদ্ধি পাচ্ছে। এ অবস্থায় ঢাকাসহ সারা দেশের নিম্ন আয়ের শ্রমজীবী মানুষদের অর্থনৈতিক সুরক্ষার প্রশ্নটি গুরুত্ব সহকারে সামনে চলে এসেছে। আয় বন্ধ হওয়া বা কমে যাওয়া অতি সাধারণ দরিদ্র মানুষের খাদ্য নিরাপত্তার যাতে সমস্যা না হয় সেজন্য সরকারকে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহন করতে হবে।

তারা আরো বলেন, এটা নিশ্চিত যে, এ ধরনের সংকটকালে সব দেশেই সবার আগে এবং সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হবে নিম্ন আয়ের মানুষ ও অতিদরিদ্র জনগোষ্ঠী। বাংলাদেশ এর ব্যতিক্রম তো নয়ই, বরং বিপুল জনসংখ্যার এ দেশে এমন জনগোষ্ঠীর ঝুঁকি আরো বেশি। পরিস্থিতি মোকাবিলায় তাই সরকারকে এখনই সংশ্লিষ্ট সবাইকে নিয়ে নিম্ন আয়ের মানুষদের সুরক্ষায় জরুরি ভিত্তিতে সঠিক তালিকা প্রনয়নের মাধ্যমে বিশেষ পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে। যাতে করে সকলের নিকট সহযোগিতা পৌছে।

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন তবে আপনি চাইলে অপ্ট-আউট করতে পারেন Accept আরও পড়ুন