প্রবাসীদের সমস্যা সমাধান ও সুযোগ-সুবিধা বৃদ্ধি নিয়ে রিয়াদ আওয়ামী পরিষদ (আওয়ামী লীগ) সহ সাতটি সংগঠনের সংবাদ সম্মেলন

41
gb
প্রতিনিধি : প্রবাসীদের সমস্যা সমাধান ও সুযোগ-সুবিধা বৃদ্ধি নিয়ে রিয়াদ আওয়ামী পরিষদ (আওয়ামী লীগ) সহ সাতটি সংগঠনের সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে । ৭ই মার্চ রাতে স্থানীয় একটি কমিউনিটি সেন্টারে রিয়াদ আওয়ামী পরিষদ (আওয়ামী লীগ), বঙ্গবন্ধু পরিষদ, স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ, আওয়ামী যুবলীগ, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগ, জাতীয় শ্রমিক লীগ ও পূর্বাঞ্চল কৃষক লীগের যৌথ উদ্যোগে প্রবাসীদের সমস্যা সমাধান ও সযোগ-সুবিধা বৃদ্ধিকল্পে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে আঠারটি দাবি উপস্হাপন করেন রিয়াদ আওয়ামী পরিষদের সভাপতি এম আর মাহবুব । অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন আওয়ামী পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক আলী নূর ইসলাম রনি।
সংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন, আওয়ামী পরিষদের সাধারণ সম্পাদক খুরশিদ আলম তপন, গাজী সাঈদ, জিয়াউদ্দিন বাবলু, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এ্যালামনাই এসোসিয়েশন রিয়াদ চ্যাপ্টার এর সাধারণ সম্পাদক কবি শাহজাহান চঞ্চল, বঙ্গবন্ধু পরিষদের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি রুইসউজ্জামান, রিয়াদ যুবলীগ সভাপতি এমএ জলিল রাজা, আসাদুজ্জামান ভূঁইয়া ইলিয়াছ, শেখ ফজলুল হক, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক ফারুক হোসেন, শাওন মহসিন খান, জাতীয় শ্রমিক লীগের শেখ জামাল, কৃষক লীগের গিয়াস উদ্দিন মজুমদারসহ আরও অনেকে ।

এমআর মাহবুব বলেন, প্রবাসী মেহনতী ও সাধারণ মানুষ যাদের শ্রমের টাকায় দেশের উন্নয়ন হয়, সেই উন্নয়নের অংশীদারদের সঠিক ভাবে সম্মান দিতে পারলেই বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বাস্তবায়ন হবে। আমরা চাই এই সমস্ত সমস্যা মুজিববর্ষে সমাধান হোক।

প্রবাসীদের ক্ষেত্রে জাতীয় পরিচয় পত্র খুবই জরুরী এখান থেকে দেশে গিয়ে আইডি কার্ড বানানো অত্যান্ত দুষ্কর ও দুরূহ বিষয়। কাজেই এর সমাধান এখানে হওয়া দরকার। এখন প্রবাসীরা বিভিন্ন সমস্যায় জর্জরিত যার জন্যে প্রবাসীদের মৃত্যুর সংখ্যা অনেক বেড়ে চলছে। একজন প্রবাসী মৃত্যু বরণ করলে তার পরিবারকে দেওয়া হয় তিন লাখ পঁয়ত্রিশ হাজার টাকা, অপরদিকে একজন গার্মেন্টস কর্মী মৃত্যু বরণ করলে তাদের দেওয়া হয় দশ/বারো লাখ টাকা।তাই প্রবাসী মৃত্যুবরণ করলে তাদের দশ লাখ টাকা দিতে হবে । তিনি প্রবাসীদের পেনশন স্কিম ও ইন্সুরেন্স থাকার প্রয়োজন আছে বলে উল্লেখ করে বলেন, প্রবাসীরা দীর্ঘদিন প্রবাসে থেকে দেশে ফিরে গিয়ে অসুস্থ হয়ে পড়লে, যাতে করে উন্নত চিকিৎসা নিতে পারেন এবং অবসর সময়ে পেনশন স্কিমের অর্থ দিয়ে জীবনযাপন করতে পারেন ।

দাবিসমূহ
১. প্রবাসীদের ( ন্যাশনাল আই ডি কার্ড) দ্রুত সময়ের মধ্যে ব্যবস্থা গ্রহণ করার দাবি জানাচ্ছি, কেননা বাংলাদেশে যে কোন সরকারি কাজ করার জন্য বর্তমানে এই আইডি কার্ড জরুরি ভাবে আবশ্যক।২. মৃত প্রবাসী পরিবারকে প্রবাসী কল্যাণ ফান্ড থেকে সরকারিভাবে মাত্র ৩ লক্ষ ৩৬ হাজার টাকা অনুদান দেওয়া হয়, যা বর্তমান সময়ে খুবই সামান্য, এটি বৃদ্ধি করে ১০ লক্ষ টাকা করার দাবি জানাচ্ছি।০৩.সকল প্রবাসীর রেমিট্যান্স প্রেরণের উপর ভিত্তি করে প্রবাসী পেনশন স্কীম চালু করার দাবি জানাচ্ছি।০৪. প্রবাসীর স্বাস্থ্যবীমা (মেডিকেল ইন্সুইরেন্স) নিশ্চিত করে প্রবাসে এবং দেশে স্বল্প খরচে ভালো মানের হাসপাতালে চিকিৎসা নেয়ার ব্যবস্থা করতে হবে।০৫. দেশে সরকারিভাবে প্রতিটি জেলায় এবং উপজেলায় প্রবাসী হাসপাতাল করার দাবি জানাচ্ছি। যেন প্রবাসী পরিবার সাস্থ্যসেবা নিতে পারেন।০৬. প্রবাস থেকে দেশে ফেরত কর্মীদের স্বল্প সময়ের মধ্যে পুনর্বাসনের ব্যবস্থা করার দাবি জানাচ্ছি।০৭. নারী কর্মীদের বিদেশে প্রেরণের জন্য এজেন্সি গুলি নির্ধারিত বয়স ও তাদের যথাযথ প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হয়েছে কিনা অভিজ্ঞ, সৎ অফিসার দিয়ে তদারকি করা, গাফিলতি থাকলে এজেন্সির বিরুদ্ধে জরুরি ব্যবস্থা নেয়া।০৮. প্রবাসে অসহায় নারী শ্রমিকদের জন্য দূতাবাসের আশ্রয় কেন্দ্রে সুযোগ – সুবিধা বৃদ্ধি করে, তাদের অল্প সময়ের মধ্যে দেশে ফেরত পাঠানোর ব্যবস্থা করা।০৯. প্রবাসী শ্রমিকদের মরদেহ দেশে প্রেরনের ক্ষেত্রে সরকারি ভাবে দূতাবাসের মাধ্যমে তাতক্ষনিক ব্যবস্থা করার দাবি জানাচ্ছি।১০. প্রবাসীদের বিভিন্ন সমস্যা সমাধানের জন্য দূতাবাসের আইনী পরামর্শ ও সহায়তা কার্যক্রমের পরিধি বৃদ্ধি করা।১১. পাসপোর্ট নবায়ন করার জন্য আগের মত কন্সুলেট সেবা চালু করা, প্রবাসী সেবা কেন্দ্র গুলির সেবার মান বাড়ানোর ব্যাপারে দূতাবাসের অফিসারদের দিয়ে দৈনিক মনিটরিং করা।১২. প্রবাস ফেরত পরিবারের সন্তানদের দেশের ভালো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে প্রবাসী কোটা ভিত্তিক ভর্তির সুযোগ প্রদান।১৩. বাংলাদেশে বিনিয়োগে আগ্রহী প্রবাসীদের জন্য ওয়ানস্টপ সার্ভিস চালু করা।১৪. বিমানবন্দরে প্রবাসীদের হয়রানি বন্ধ করা।১৫. বাংলাদেশ বিমানের টিকেট ও লাগেজ সিন্ডিকেটদের মাধ্যমে প্রবাসী যাত্রি হয়রানি বন্ধ করতে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করা।১৬. দুদক এর অনুসন্ধানে প্রমাণিত একজন দুর্নীতিবাজ হিসাবে চিহ্নিত রিয়াদের বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স এর ম্যানেজার আমিনুল হক ভূঁইয়াকে দ্রুত সময়ের মধ্যে বরখাস্ত করে আইনের আওতায় আনার দাবি জানান।১৭. সৌদি আরবের প্রবাসী বাংলাদেশি স্কুল গুলির জমি ক্রয় করে দ্রুত সময়ের মধ্যে নিজস্ব ভবনে শিক্ষা কার্যক্রম চালু করার দাবি জানাচ্ছি।১৮. বাংলাদেশে সরকারি ইপিজেড গুলিতে প্রবাসীদের ব্যবসা করার সুবিধা প্রদানের মাধ্যমে বিনিয়োগ করার ব্যবস্থা করা।উপরোক্ত বিষয় গুলি জাতিরজনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষ ২০২০ এর মধ্যে বাস্তবায়নের ব্যবস্থা গ্রহণ করে প্রবাসীদের কল্যাণে সরকারের সংশ্লিষ্ট মহলের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।দাবি উপস্থাপন করার পরে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এম আর মাহবুব বলেন আমরা এই দাবি গুলি দূতাবাসের মাধ্যমে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে পৌঁছাতে চাই। এবং আমরা -রিয়াদ আওয়ামী পরিবারের ৭ সংগঠনের নেতৃবৃন্দরা দেশে গিয়ে প্রধান মন্ত্রীর কাছেও উপস্থাপন করবো।

এসময় রিয়াদে কর্মরত বাংলাদেশি বিভিন্ন প্রিন্ট, ইলেক্ট্রনিক ও অনলাইন মিডিয়ার সংবাদ কর্মীরা উপস্হিত ছিলেন ।

পরে, রিয়াদ আওয়ামী পরিষদ কমিটির একবছর পূর্তি কেক কেটে উদযাপন করা হয় ।

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন তবে আপনি চাইলে অপ্ট-আউট করতে পারেন Accept আরও পড়ুন