ভোট্টা চাষে স্বাবলম্বী ওসমানীনগরের বাবুল

49
gb

সিলেটের ওসমানীনগরে ভোট্টা চাষে আলোর মুখ দেখেছন ওসমানীনগরের এক কৃষক। উপজোলার উমরপুর ইউনিয়নের হামতনপুর গ্রামে ৫৭ একর জায়গা জুড়ে ভুট্টা চাষ করেন তিনি। এছাড়া ৫ একর জায়গা জুড়ে সূর্যমুখি চাষ এবং ৩ একর জায়গা জুগে শরিষা চাষ করেছেন এই কৃষক। কৃষক আবজাদ হুসেন বাবুল মিয়া একই গ্রামের মৃত শাহতাৎ আলীর পূত্র। ছোট বেলা থেকেই তিনি কৃষিকাজের সাথে নিয়জিত। বিশাল এই জায়গা নিয়ে ভোট্টা চাষে আলোর মুখ দেখছেন তিনি। বর্গা নিয়ে সর্ব মোট ৬৫ একর জায়গায় ভোট্টা, সূর্যমূখী, ও শরিষার চাষ করেন তিনি। ইতিমধ্যে সার্বক্ষনিক উপজেলা কৃষি অফিসের সাথে যোগাযোগ এবং উপজেলা কৃষি কর্মকর্তাদের পরামর্শ তিনি বিশাল এই জায়গা জুরে চাষাবাদ করেছেন। সূর্যমুখি চাষ কারায় বিভিন্ন এলাকা থেকে অনেকেই আসছেন ভোট্টা এবং সূর্যমুখি ক্ষেতে ছবি তুলতে। অনেকে আবার ছবি তুলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও প্রচার করছেন। তা দেখে বাবুল মিয়ার ক্ষেতে ভির জমাচ্ছেন স্থানীয়সহ ভিবিন্ন এলাকা থেকে আগত শৌখিন মানুষ।
বাবুল মিয়ার সূর্যমুখি ও ভোট্টার সূর্যমূখি চাষের খবর পেয়ে চাষকৃত ক্ষেত পরিদর্শন করেছেন, বালাগঞ্জ উপজেলা কৃষি অফিসার সুমন মিয়া, উমরুপর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান গোলাম কিবরিয়া, ইউনিয়ন কৃষি কর্মকর্তা শিল্পী রানী নাথ, তপন চন্দ্র নাথ, ইউপি সদস্য রুখন মিয়া, মাহফুজল হক আকলু, আওয়ামীলীগ নেতা জাকির হুসাইন, স্থানীয় সমাজ সেবক হাবিবুর রহমান শিপ, আসকির মিয়া, চুনু মিয়া, আতিকুর রহমান, বদরুল ইসলাম প্রমুখ।
পরিদর্শন শেষে বালাগঞ্জ কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তর এর আযোজনে সরিষা প্রদর্শীনির মাঠ দিবস উপলক্ষে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এসময় বক্তরা বলেন, বাবুল মিয়ার মতো আরো অনেকেই ভুট্টা আর সরিষা চাষে এগিয়ে এলে কৃষি ক্ষাতে যেমন অগ্রনী বূমিকা পালন হবে তেমনি ারিদ্রা বিমুচন করে স্বাবলম্বী হওয়া যাবে । সরকার কৃষি ক্ষাতে ব্যপাক উন্নয়নের জন্য কৃষকরে বিনা মূল্যে সার ও বীজ দিয়ে যাচ্ছে। তাই পতিত জমি না রেখে চাষাবাদে সকলকে এগিয়ে আসার আহবান যানান তারা।

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন তবে আপনি চাইলে অপ্ট-আউট করতে পারেন Accept আরও পড়ুন