পাড়ার দলের মতো ইনিংস হারল ‘টাইগার’রা!

32
gb

জিবি নিউজ ২৪ ডেস্ক//]

ইন্দোর টেস্টের প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশের হয়ে সর্বোচ্চ ৪৩ রান করেছিলেন মুশফিকুর রহিম। আজ ম্যাচের তৃতীয় দিনে বাংলাদেশের দ্বিতীয় ইনিংসেও সর্বাধিক রান ‘মি. ডিপেন্ডেবল’ এর। আবু জায়েদ নিয়েছেন ৪ উইকেট। এই স্বান্ত্বনা পুরস্কারসহ আজ বাংলাদেশকে ইনিংস ব্যবধানে হারিয়ে দিল স্বাগতিক ভারত। তিন দিনেই শেষ হয়ে গেল সিরিজের প্রথম টেস্ট। দুই ইনিংসের কোনোটিতেই পুরো একদিন খেলতে পারল না টাইগাররা। হারের ব্যবধান তাই ইনিংস এবং ১৩০ রান। ২২ তারিখ থেকে দিবা-রাত্রির টেস্ট শুরু হবে ইডেন গার্ডেনে।

দ্বিতীয় ইনিংসে ৩৪৩ রানে পিছিয়ে থেকে ব্যাটিংয়ে নামে বাংলাদেশ। শুরু থেকেই যথারীতি সেই আউট হওয়ার প্রতিযোগিতায় মেতে উঠেন ব্যাটসম্যানরা। দলীয় ১৬ রানে উমেশ যাদবের বলে বোল্ড হওয়া ইমরুল কায়েসকে (৬) দিয়ে শুরু। স্কোরবোর্ডে ৬ রান যোগ হতেই অপর ওপেনার সাদমান ইসলামকে (৬) বোল্ড করেন পেসার ইশান্ত শর্মা। অধিনায়ক মুমিনুল হক আর মোহাম্মদ মিঠুন দলের বিপর্যয় সামাল দেওয়ার চেষ্টা করেন। কিন্তু কোথায় কী? ব্যাটিং ব্যর্থতা অব্যাহত রেখে ৭ রান করে মোহাম্মদ শামির শিকার হন অধিনায়ক মুমিনুল হক।

মোহাম্মদ মিঠুন যেন ওয়ানডে খেলতে নেমেছিলেন। ৪ বাউন্ডারি হাঁকিয়ে ২৬ বলে ১৮ রান করে শামির দ্বিতীয় শিকার হন তিনি। ভায়রা-ভাই জুটি আজও চেষ্টা করে ফল পাননি। ৩৫ বলে ১৫ রান করে মোহাম্মদ শমির তৃতীয় শিকার হয়েছেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। এরই সঙ্গে দলীয় ৭২ রানে বাংলাদেশের দ্বিতীয় ইনিংসের অর্ধেক শেষ হয়ে যায়। প্রথম ইনিংসের মতোই মারকাটারি শুরু করেন লিটন দাস। ৩৯ বলে ৬ চারে ৩৫ রানে অশ্বিনের বলে কট অ্যান্ড বোল্ড হন তিনি। ভাঙ্গে ৬৩ রানের ৬ষ্ঠ উইকেট জুটি।

সবার বিপরীতে দাঁড়িয়ে ৮২ বলে হাফ সেঞ্চুরি তুলে নেন মুশফিক। যা চলতি ম্যাচে বাংলাদেশর কোনো ব্যাটসম্যানের প্রথম হাফ সেঞ্চুরি। মিরাজের সঙ্গে তার ৫৯ রানের জুটি জমে গিয়েছিল। কিন্তু ৫৫ বলে ৩৮ রান করা মিরাজ উমেশ যাদবের বলে বোল্ড হলে প্রতিরোধ ভাঙে। শামির চতুর্থ শিকার হয়ে ৬ রানে ফিরেন তাইজুল। আবু জায়েদকে (০) ফেরত পাঠান অশ্বিন। একক লড়াইয়ে ১৫০ বলে ৬৪ করে মুশফিক অশ্বিনের বলে পুজারার তালুবন্দি হলে ২১৩ রানে অল-আউট হয় বাংলাদেশ। ইনিংস এবং ১৩০ রানে ইন্দোর টেস্ট জিতে নিল ভারত। ১৬ ওভারে মাত্র ৩১ রানে ৪ উইকেট নিয়েছেন শামি। ৩ উইকেট নিয়েছেন রবিচন্দ্রন অশ্বিন।

এর আগে প্রথম ইনিংসে ১৫০ রানে অল-আউট হয় বাংলাদেশ। সর্বোচ্চ ৪৩ রান করেন মুশফিকুর রহিম। জবাবে ৬ উইকেটে ৪৯৩ রান তুলে আজ শনিবার সকালে নিজেদের প্রথম ইনিংস ঘোষণা করে ভারত। ৩৩০ বলে ২৪৩ রানের চোখ ধাঁধানো ইনিংস খেলেন ওপেনার মায়াঙ্ক আগরওয়াল। এছাড়া আজিঙ্কা রাহানে ৮৬, রবীন্দ্র জাদেজা ৬০* এবং চেতেশ্বর পূজারা ৫৪ রান করেন। পেসার আবু জায়েদ রাহী নেন ১০৮ রানে ৪ উইকেট।

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More