মাস্ক পরে লিটনের অনুশীলন; ভারতে তুমুল বিতর্ক

84
gb

জিবি নিউজ ২৪ ডেস্ক//

আগেই জানা গিয়েছিল, দীপাবলি উপলক্ষে আবারও ভয়াবহ বায়ু দূষণের কবলে পড়তে যাচ্ছে ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লি। হয়েছেও তাই। কিন্তু এই দিল্লির ফিরোজ শাহ কোটলা স্টেডিয়ামেই প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলতে হবে বাংলাদেশকে। আজ বৃহস্পতিবার ছিল প্রথম অনুশীলন। অনুশীলনে বায়ুদূষণ ঠেকাতে মাস্ক পরে অনুশীলন করলেন লিটন দাস। এই ঘটনা নিয়ে তুমুল শোরগোল চলছে সোশ্যাল সাইটে। প্রশ্ন উঠেছে দিল্লিতে টি-টোয়েন্টি ম্যাচ আয়োজন নিয়ে।

রবিবার কোটলায় বাংলাদেশের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে নামবে ভারত। দিওয়ালির পর রাজধানীতে ম্যাচ বলে আপত্তি করছেন পরিবেশবিদরা। তাদের মতে, নয়াদিল্লিতে কয়েক ঘণ্টা খেলা হলে ক্রিকেটারদের দীর্ঘমেয়াদি ক্ষতি হয়ে যাবে। তাছাড়া গ্যালারিতে দীর্ঘক্ষণ বসে থাকা দর্শকরাও বায়ুদূষণের শিকার হবেন। সাবেক ক্রিকেটার গৌতম গম্ভীর এই পরিস্থিতিতে রবিবারের ম্যাচ হওয়া উচিত নয় বলে মনে করছেন। তার মতে, ম্যাচ আয়োজনের থেকে দূষণ আটকানো অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ।

যদিও বোর্ড প্রেসিডেন্ট সৌরভ গাঙ্গুলী জানিয়েছেন যে, ফিরোজ শাহ কোটলাতেই সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে। ম্যাচ সরানোর কোনো পরিকল্পনা নেই। সুতরাং বাধ্য হয়েই আজ নয়াদিল্লিতে অনুশীলন করেছেন বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা। তার মধ্যে লিটন দাসকে দেখা গেল ১০ মিনিটের জন্য মুখে মাস্ক বেঁধে অনুশীলন করতে। তবে ব্যাটিংয়ের সময় তিনি মাস্ক পরেননি। বাংলাদেশের আর কোনও ক্রিকেটার মাস্ক পরেননি।

যদিও ভারতীয় দল দূষণের ইস্যুকে খুব একটা গুরুত্ব দিচ্ছে না। বিরাট কোহলির অনুপস্থিতিতে নেতৃত্বভার পাওয়া রোহিত শর্মা যেমন বায়ুদূষণকে সমস্যা হিসেবে দেখছেন না। তার কথায়, ‘আমি মাত্র এসেছি। পরিস্থিতি কেমন তা বোঝার জন্য খুব একটা সময় পাইনি। আমি যত দূর জানি, ৩ নভেম্বর ঠিকই খেলা হবে। এখানে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে যখন টেস্ট খেলেছিলাম, তখন কোনো সমস্যা হয়নি। ঠিক কী আলোচনা হচ্ছে, তা জানা নেই। আর আমি কোনো সমস্যাও দেখছি না।’