ঘুষ গ্রহনের সময় সাতক্ষীরায় আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে নিরাপত্তার কাজে নিযোজিত আনসার সদস্য ইজ্জত আলী আটক

85
gb

ভ্রাম্যমান আদালতে ১ মাসের বিনাশ্রম কারাদ্বন্ড প্রদান সাতক্ষীরা প্রতিনিধি : ঘুষ গ্রহনের সময় সাতক্ষীরায় আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে নিরাপত্তার কাজে নিযোজিত আনসার সদস্য ইজ্জত আলীকে হাতে নাতে আটক করেছে জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যরা। পরে তাকে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে এক মাসের বিনাশ্রম কারাদ্বন্ড প্রদান করা হয়। বুধবার দুপুরে শহরের পলাশপোল আঞ্চলিক পাসর্পোট অফিসে ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ আবু সাঈদ এ সাজা প্রদান করেন। সাজাপ্রাপ্ত আনসার সদস্য ইজ্জত আলী যশোর জেলার মনিরামপুর থানার পারখাজুরা গ্রামের ঈমান আলীর ছেলে। জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থা (এন.এস.আই) সাতক্ষীরার উপ-পরিচালক মোঃ জাকির হোসেন জানান, সাতক্ষীরা পাসপোর্ট অফিসে দালালদের মাধ্যমে বাড়তি টাকা ছাড়া কেউ পাসপোর্ট করতে পারেননা এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে দুপুরে সেখানে সাতক্ষীরাস্থ জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যরা অভিযান চালায়। এ সময় এক জন ভুক্তভোগীর স্বীকারোক্তি মোতাবেক সেখানে নিরাপত্তার কাজে নিযোজিত আনসার সদস্য ইজ্জত আলীকে ঘুষের টাকাসহ হাতে নাতে আটক করা হয়। পরে তাকে ভ্রাম্যমান আদালতে হাজির করা হলে বিচারক অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ আবু সাঈদ তাকে ১ মাসের বিনাশ্রম কারাদ্বন্ড প্রদান করেন। উল্লেখ্যঃ এর আগে গত ২৭ অক্টোবরে সাতক্ষীরা পাসপোর্ট অফিস থেকে ভ্রাম্যমান আদালতে হাতে আটক দালাল শেখ তরিকুল আলম জনসম্মুখে বলেছিলেন, পাসপোর্ট অফিসের হিসাব রক্ষক ইন্দ্রিরা গাইন, আউট সোর্সিং লাভলু, এম.এল.এস.এস মনির হোসেন ও সোহাগ প্রতিটি পাসপোর্ট বাবদ বিভিন্ন দালালের মাধ্যমে অবৈধ সুযোগ সুবিধা নিয়ে থাকেন। ##