’অস্ট্রেলিয়া মেন্টরিং নাইটে বিশ্বের ১০টি দেশের প্রতিনিধিদের সাথে সিলেটের সিলভী ‘’

125
gb

জিবি নিউজ ডেস্ক ।।

’অস্ট্রেলিয়া মেন্টরিং নাইটে বিশ্বের ১০টি দেশের প্রতিনিধিদের সাথে সিলেটের সিলভী ‘’ রাব্বি আহমদ রবিন.মেন্টরিং নাইটে বিশ্বের ১০টি দেশের প্রতিনিধিদের সাথে প্রতিনিধিত্ব করেন সিলেটের লিডিং ইউনিভার্সিটির প্রাক্তন শিক্ষার্থী সৈয়দা নাজনীন আহমদ সিলভী। তিনি লিডিং ইউভার্সিটি মডেল ইউ এন ২০১৮ এর ডিরেক্টর জেনারেল হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন এবং সিলেটের ন্যাশনাল মডেল ইউ এন এর সর্বপ্রথম মহিলা ডিরেক্টর জেনারেল এর খ্যাতি অর্জন করেন। তিনি লিডিং ইউনিভার্সিটি মডেল ইউ এন এসোসিয়েশনের ২০১৮-২০১৯ এর পরিচালনা কমিটিতে ট্রাস্টি বোর্ড মেম্বারের দায়িত্ব পালন করেন। অস্ট্রেলিয়া ক্যানবেরার রাজধানীর ইউনাইটেড নেশনস অ্যাসোসিয়েশনস আয়োজিত বাংলাদেশে এসডিজি বাস্তবায়নের লক্ষে ক্যানবেরার তরুণ পেশাদার আইন, পরামর্শদাতাদের একচ্ছত্র দল বিশ্বব্যাপী পরিবর্তনবিদ হিসাবে তাদের অভিজ্ঞতা বিষয়ক এক সেমিনারে অংশ গ্রহন করেন সিলভী । ২৭ আগস্ট অস্ট্রেলিয়া একটি স্পিড মেন্টরিং নাইটে বিশ্বের ১০টি দেশের প্রতিনিধিদের সাথে বাংলাদের প্রতিনিধিত্ব করে দেশের বিভিন্ন উন্নয়ন মুলক কর্মকান্ড ও নিজেদে অজ্ঞিতা বিষয়ে অলোচনা করেন। এছাড়া সেমিনারে ক্যানবেরার তরুণ পেশাদার আইন, যেখানে পরামর্শদাতাদের একচ্ছত্র দল বিশ্বব্যাপী পরিবর্তনবিদ হিসাবে তাদের অভিজ্ঞতা ভাগ করে নিয়েছে এবং ইউএন এজেন্সিগুলির সাথে কাজ করার জন্য তাদেরকে রাস্তার মানচিত্র দেখিয়েছ। এসময় তিনি নিজ দেশ, বাংলাদেশে এসডিজি বাস্তবায়নের বিষয়ে নিজের অভিজ্ঞতা প্রকাশ করেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন লরা কোমেনসোলি অস্ট্রেলিয়ান সরকারের পক্ষে কাজ করা আধুনিক দাসত্ব আন্তর্জাতিক অংশীদারিত্ব দলের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক জহ্মা স্যান্ডার্স – কিং ও উড ম্যালসনসে সিনিয়র ক্লায়েন্ট রিলেশনশিপ ম্যানেজার লরা জন ,অস্ট্রেলিয়ান সরকারী সলিসিটারের সিনিয়র আইনজীবী এবং ইউএনএএ ইয়ং প্রফেশনাল নেটওয়ার্কের জাতীয় রাষ্ট্রপতি আন্দ্রে টোকাজি, আন্তর্জাতিক মানবাধিকার আইনজীবী অ্যাডভোকেট, লবিস্ট, প্রভাষক এবং পিএইচডি প্রার্থী ইভলাইন (এভি), অস্ট্রেলিয়ান পাবলিক সার্ভিসে নীতি উপদেষ্টা এবং অস্ট্রেলিয়ান রেড ক্রসের সাথে স্বেচ্ছাসেবক স্টিফেন ব্রাইটম্যান – কিং ও উড ম্যালেসনসে মার্জার এবং অধিগ্রহণ দলে সিনিয়র সহযোগী লাচলান হান্টার – ইউএনএএর নির্বাহী পরিচালক কোডি স্মিথ, লিঙ্গ এজেন্ডায় ইন্টারসেক্স প্রকল্প কর্মীসহ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। Team LUMUNA সিলভী এর এই সফরকে গর্বের সহিত সাধুবাদ জানায় এবং সিলভীর এই অর্জিত সাফল্য ‘সিলেটের নতুন তরুন কূটনীতিকদের জন্য অনুপ্রেরণার উৎস’ বলে আখ্যায়িত করে।

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন তবে আপনি চাইলে অপ্ট-আউট করতে পারেন Accept আরও পড়ুন