আপনারা আমাদের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করছেন -এই সুইডিশ কিশোরী ঝড় বইয়ে দিল

জাতিসংঘের জলবায়ু সম্মেলনে

192
gb

অনলাইন ডেস্ক ||

এই মেয়েটাই ঝড় বইয়ে দিল জাতিসংঘের জলবায়ু সম্মেলনে। চোখে-মুখে আত্মপ্রত্যয়ের ছাপ স্পষ্ট। সঙ্গে রয়েছে তীব্র রাগ। রাষ্ট্রনায়কদের বিরুদ্ধে প্রতিবাদের তোপ উঠিয়ে বললেন, হাউ ডেয়ার ইউ! তার নাম গ্রেটা থুনবার্গ, সে একজন সুইডিশ কিশোরী।মেয়েটার বয়স মাত্র ১৬।

গলে যাচ্ছে বরফ। ক্রমশ বেড়ে চলেছে সমুদ্রের পানি। সঙ্গে পাল্লা দিচ্ছে গ্রিন হাউজ গ্যাসের লাগাম ছাড়া বৃদ্ধি। দূষণের মাত্রা লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে প্রতিদিন। তাই পরিবেশ বাঁচাতে উদ্যোগ নিয়েছিল এই সুইডিশ কিশোরী। শুরুতে একা ছিল গ্রেটা। আজ বিশ্বের দরবারে সে পরিচিত তার কাজের জন্য। তার অনুপ্রেরণাতেই গত ২০ সেপ্টেম্বর শুক্রবার, পৃথিবীর ৪০০ শহরে পালিত হয়েছে ‘জলবায়ু ধর্মঘট’ বা ‘ক্লাইমেট স্ট্রাইক’।

সোমবার নিউ ইয়র্কে জাতিসংঘের ‘ক্লাইমেট সামিটে’ যোগ দিয়েছিলেন গ্রেটা। সেখানেই সুইডিশ কিশোরীকে একদম অন্যরূপে দেখল বিশ্ববাসী। গ্রিন হাউজ গ্যাসের নির্গমন রোধে ব্যর্থতার মধ্য দিয়ে তার প্রজন্মের সঙ্গে যে বিশ্বাসঘাতকতা করা সেই প্রশ্ন ফের একবার তুলে দিলেন গ্রেটা। পড়াশোনা থেকে আপাতত এক বছরের জন্য বিরতি নিয়েছে গ্রেটা। আপ্রাণ চেষ্টা করছে পরিবেশকে বাঁচানোর। তবে এ দিন খানিকটা রেগে গিয়েই গ্রেটা বলেন, সবকিছু ভুল হচ্ছে। আমার এখানে থাকার কথাই নয়। বরং সাগরের ওপারে নিজের স্কুলে থাকা উচিত।
এর আগেও পৃথিবীর সমস্ত রাষ্ট্রনায়কদের দিকে আঙুল তুলেছিল গ্রেটা। জোর গলায় সে বলেছিল, আমরা এখনও অনেকদিন বাঁচব। কিন্তু পৃথিবী বাঁচবে কি? দূষণ আর উষ্ণায়নে পৃথিবীর মৃত্যু ডেকে আনছ তোমরা। তোমাদের মতো ‘পলিসি মেকারদের’ জন্যই এই দুর্গতি আমাদের ছোটদের। আমাদের ভোটে দাঁড়ানোর বয়স হয়নি। তোমরা জিতেছ। তাই তোমাদেরই ব্যবস্থা করতে হবে। করতেই হবে।

এরপরেই সেই বিস্ফোরক মন্তব্য করে গ্রেটা থুনবার্গ। শান্ত গলায় বলে, আশা নিয়ে তোমরা আমাদের কাছে আসো। কী সাহস তোমাদের। হাউ ডেয়ার ইউ। তোমাদের ফাঁকা ভাষণ দিয়ে আমাদের শৈশবের সব স্বপন ভেঙে চুরমার করে দাও। মানুষ মারা যাচ্ছে। গোটা পরিবেশ রসাতলে যাচ্ছে।

গ্রেটার কথায়, আমি রাগ করি বা আমার খারাপ লাগে এটা আসল বিষয় নয়। তবে আমি এটা মানতে নারাজ যে আপনারা সত্যিই পরিস্থিতিটা বুঝতে চান এবং পারেন, কিন্তু তার পরেই প্রতিরোধ করতে ব্যর্থ হন। এটা আমি বিশ্বাসই করতে পারি না।

গ্রেটার চোখা চোখা সওয়ালের পর ফের একবার রাষ্ট্রনায়কদের একহাত নেয় সুইডিশ কিশোরী গ্রেটা। সে বলে, আপনারা আমাদের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করছেন। কিন্তু এ বার যুব সমাজ সবটা বুঝতে পারছে। আগামী প্রজন্মের নজর আপনাদের উপরেই রয়েছে। আপনারা আমাদের হতাশ করলে কথা দিচ্ছি আমরা আপনাদের কাউকে রেয়াত করব না।

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন তবে আপনি চাইলে অপ্ট-আউট করতে পারেন Accept আরও পড়ুন