গোপালগঞ্জে বুশেমুরবিপ্রবি’র বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র ও শিক্ষকদেরকে অপমান করায় শিক্ষার্থী বহিষ্কার

42
gb

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি :

গোপালগঞ্জে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের ২য় বর্ষের শিক্ষার্থী ফাতেমা তুজ জিনিয়াকে ফেইসবুক স্ট্যাটাসের জন্য বহিষ্কার করা হয়নি। সে অন্যায়ভাবে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও শিক্ষিকাদের নিয়ে অশালীন কুরুচিপূর্ণ কুৎসা রটনা, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষিকাদের ফেইসবুক-ইমেইল আইডি হ্যাক, বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট হ্যাক ও বিশ্ববিদ্যালয়ের বর্তি পরীক্ষার ওয়েব-সাইট হ্যাক করে ভর্তি পরীক্ষা বানচালের ষড়যন্ত্রে লিপ্ত ছিল। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. খোন্দকার নাসিরউদ্দিন তার অফিসকক্ষে এক সংবাদ-সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।
ভিসি আরও বলেন, তার নিজের আইডি দু’বার হ্যাক হয়েছে। ফাতেমা তুজ জিনিয়া তার ফেইসবুক স্ট্যাটাসে বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মানিত শিক্ষকদেরকে নিয়ে খেলতে চেয়েছে এবং বঙ্গবন্ধুর মুরাল নিয়ে মিথ্যাচার ও অশালীন মন্তব্য করেছে। সম্প্রতি বিভিন্ন অনলাইন পোর্টালে কোনপ্রকার সত্যতা যাচাই না করে এবং বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের কাছ থেকে তথ্য না নিয়েই বিভিন্ন মিথ্যা, বানোয়াট, ভিত্তিহীন সংবাদ পরিবেশন করে; যা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের দৃষ্টিগোচর হয়। একজন শিক্ষার্থী হয়ে শিক্ষকদেরকে অপমান ও বিশ্ববিদ্যালয়ের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করে সে অন্যায়, গর্হিত ও শাস্তিযোগ্য অপরাধ করেছে বলেই বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন মনে করে। একারণে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ গত ১১ সেপ্টেম্বর ফাতেমা তুজ জিনিয়াকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাময়িক বহিষ্কার করে এবং ৫ কর্মদিবসের মধ্যে তাকে এ ব্যাপারে লিখিত বক্তব্য প্রদানের নির্দেশ দেয়; যে সময়সীমা শেষ হবে বুধবার।

gb
মন্তব্য
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More