সাতক্ষীরা ভোমরস্থল বন্দরের ব্যাবসায়ির দুই ট্রাক পিয়াজ গায়েব করে দিলেন আর এফ ট্রান্সপোর্টের মালিক ফিরোজ হোসেন

64
gb

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি:
সাতক্ষীরা ভোমরাস্থল বন্দরের আর এফ ট্রান্সপোর্টের মালিক কতৃক দুই ট্রাক পিয়াজ আত্মসাথ করেছেন। যার বাজার মুল্যে প্রায় ২২ লাখ টাকা। নিদিষ্টস্থনে পৌঁছে দেওয়ার কথা বলে উক্ত ট্রান্সপোর্ট মালিক দুই ট্রাক পিয়াজ আত্মসাথ করেছেন।
মঙ্গলবার দুপুরে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে এ অভিযোগ করেন মেসার্স সৃষ্টি ট্রেডার্সের মালিক সদর উপজেলার শ্রীরডাঙ্গা গ্রামের বিমল কৃষ্ণ মন্ডলের ছেলে দিপংকর মন্ডল।

লিখিত অভিযোগে বলা হয়, তিনি গত ১২/০৯/১৯ তারিখে ভারত থেকে এলসির মাধ্যমে দুই ট্রাক পিয়াজ আমদানি করেন। যার বিল অব এন্টি নং ১৬১৬৬ ওজন ৪০ টন। উক্ত দুই ট্রাক পিয়াজ ঢাকা ও কুমিল্লায় পৌঁছে দেওয়ার জন্য ভোমরা আরএফ ট্রান্সপোর্টর মালিক ফিরোজ হোসেনের সাথে চুক্তিবদ্ধ হই। তিনি ট্রাক প্রতি ২৮ হাজার টাকা করে চান। আমি তাতে রাজি হয়ে যাই। গত ১২/০৯/১৯ তারিখে আরএফ ট্রান্সপোর্টর মালিক ফিরোজ হোসেন ট্রাকে পিয়াজ লোড দিয়ে নিয়ে যায়। গত ১৫/০৯/১৯ তারিখে আমার ঢাকার ও কুমিল্লার ব্যাবসায়িরা বলে আমরা মাল পায়নি।

তারপর আমি আরএফ ট্রান্সপোর্টর মালিক ফিরোজ হোসেনের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি আপনার কোন মালামালের হিসাব দিতে পারবো না। পারলে আমার কাছ থেকে তুই আদায় করে নিস এবং আমাকে তাড়িয়ে দেয়। তার কথা শুনে আমি অবাক হই। এ ঘটনায় আমি ভোমরা স্থানীয় গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গকে জানালে তারা কোন ব্যাবস্থা গ্রহন না করায় আমি গত ১৬/০৯.১৯ তারিখে সাতক্ষীরা সদর থানায় আরএফ ট্রান্সপোর্টর মালিক ফিরোজ হোসেনের নামে লিখিত অভিযোগ দায়ের করি।

তিনি আরও বলেন, উক্ত ফিরোজ হোসেন ব্যাবসার আড়ালে হুন্ডির ব্যাবসা করে আসছে। এবং মাদক ব্যাবসার জাড়িত। তার বিরুদ্ধে কেউ কথা বলতে সাহস পায়না। উক্ত প্রতারকের হাত রেহাই পাওয়ার জন্য জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের হস্তক্ষেপ কমনা করছি।

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন তবে আপনি চাইলে অপ্ট-আউট করতে পারেন Accept আরও পড়ুন