টাওয়ার হ্যামলেটসের ট্রান্সপোর্ট পলিসির ওপর এ পর্যন্ত মতামত দিয়েছেন ২ হাজার মানুষ

36
gb
টাওয়ার হ্যামলেটসের পরিবহণ কৌশলপত্রের ওপর চলমান কনসালটেশনে এরই মধ্যে দুই হাজারেরও বেশি মানুষ মতামত দিয়েছেন। পায়ে হেঁটে , সাইকেলে ও গণপরিবহণে চলাচল করার হার বাড়াতে টাওয়ার হ্যামলেটস্ কাউন্সিল দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা গ্রহণের লক্ষ্যে খসড়া ট্রান্সপোর্ট স্ট্র্যাটেজির ওপর এই গণপরামর্শ কার্যক্রম পরিচালনা করছে।
কাউন্সিলের ট্রান্সপোর্ট নীতিমালার লক্ষ্য হচ্ছে, বরায় স্থানিয় বাসিন্দা ও এখানে আগত লোকজন যাতে যাতায়াতের ক্ষেত্রে টেকসই পন্থাকে বেছে নেন, এবং এটা করার মাধ্যমে তারা বাতাসের মান, সড়ক নিরাপত্তা ও গণস্বাস্থ্য উন্নত করতে ভূমিকা রাখতে পারেন, সেজন্য তাদের সহযোগিতা করা।
উল্লেখ্য, এই বরায় যানবাহনে মোট চলাচলের তিন চতুর্থাংশের দূরত্ব ১.২ মাইলেরও কম। ট্রান্সপোর্ট পলিসির ওপর জনসাধারণের মতামত ২০৪১ সাল পর্যন্ত প্রভাব ফেলবে।
টাওয়ার হ্যামলেটসের মেয়র, জন বিগস বলেন, অনলাইনে, টেলিফোনে এবং কনসালটেশন ইভেন্টগুলোতে এসে বিপুল সংখ্যক বাসিন্দা তাদের অভিমত দিয়েছেন। তারা তাদের যাতায়াতের ক্ষেত্রে যেসকল ইস্যূর মুখোমুখি হন, তা তুলে ধরেছেন এবং আমরা ব্যবসা বাণিজ্যের সাথে সংশ্লিষ্টদেরও অভিজ্ঞতা সম্পর্কে জানতে আগ্রহী।
তিনি বলেন, এই বরায় পায়ে হাঁটা ও সাইকেলে যাতায়াতের সুবিধাদি আরো উন্নত করতে এবং স্বল্প দূরত্বের যাতায়াতের ক্ষেত্রে যানবাহন চালকরা যাতে উপযুক্ত বিকল্প ব্যবহার করতে আগ্রহী হন, তা নিশ্চিত করতে আমরা ট্রান্সপোর্ট ফর লন্ডন এর সাথে কাজ করবো।
ট্রান্সপোর্ট ফর লন্ডন (টিএফএল) এর সাথে মিলে টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিল গত মাসে ক্যানরি ওয়ার্ফ এবং হোয়াইটচ্যাপলে গণপরিবহনের নিয়মিত চলচালকারীদের অভিমত জানতে তাদের সাথে কথা বলে। এছাড়া ট্রান্সপোর্ট স্ট্র্রাটেজি টিম শেডওয়েল ওভারগ্রাউন্ড স্টেশন এবং ব্রোমলি বাই বো এর টেসকোতে একইভাবে জনসাধারণের অভিমত সংগ্রহ করে।
কেবিনেট মেম্বার ফর এনভায়রনমেন্ট, কাউন্সিলর ডেভিড এডগার বলেন, কাউন্সিলের ট্রান্সপোর্ট কনসালটেশনে বিপুল সংখ্যক মানুষ অংশ নিয়েছেন। আমরা স্থানিয় ব্যবসায়িদের সাথেও এ নিয়ে কথা বলতে আগ্রহী। কারণ, পণ্য পরিবহন ও যাতায়াতের ক্ষেত্রে যে পরিবর্তনগুলো এই বরায় আনা হবে, তাতে ব্যবসায়িদের ভূমিকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।
তিনি বলেন, আমরা যে চ্যালেঞ্জগুলোর মুখোমুখি হই, তার কিছু কিছুর সম্ভাব্য সমাধান হতে পারে দিনের বিভিন্ন সময়ে কাজ করা, অত্যাধুনিক ডেলিভারির ধরন এবং অধিকতর টেকসহ যানবাহনের ব্যবহার।
www.towerhamlets.gov.uk/transport2019  এই ওয়েবসাইটে গিয়ে বারার ব্যবসায়িরা তাদের অভিমত তুলে ধরতে পারেন। এই সার্ভে চলবে ১৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত।
gb
মন্তব্য
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More