চাঁপাইনবাবগঞ্জে হত্যা মামলায় ৩ জনের ফাঁসি,স্ত্রীসহ ৪জনের যাবজ্জীবন

122

জাকির হোসেন পিংকু,চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি:
চাঁপাইনবাবগঞ্জে স্ত্রী’র পরকীয়ার জেরে রাকিব আলী বাবু (৩৫) নামে এক যুবককে হত্যার দায়ে তিনজনকে ফাঁসি,সাথে ১ লক্ষ টাকা করে অর্থদন্ড এবং নিহতের স্ত্রী’সহ ৪ জনকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড,সেই সাথে ১ লক্ষ টাকা করে অর্থদন্ড অনাদায়ে আরও ১ বছর করে বিনাশ্রম কারাদন্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত।এছাড়া অপরাধ প্রমাণিত না হওয়ায় ৮ আসামীকে বেকসুর খালাস দিয়েছেন আদালত।
বুধবার(৩১’জুলাই) দুপুরে চাঁপাইনবাবগঞ্জের অতিরিক্ত দায়রা জজ শওকত আলী আসামীদের উপস্থিতিতে এই রায় ঘোষণা করেন।
ফাঁসির দন্ডপ্রাপ্তরা হলেন, জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার পরানপুর বলিহারপুর গ্রামের মৃত মেনসাদ মন্ডলের ছেলে মেহরাব হোসেন বা”্চু (৩৯),মহেষপুর গ্রামের বাহার আলীর ছেলে জামাল উদ্দিন(৪২) ও ছোট মহেষপুর গ্রামের মৃত আব্দুস সাত্তার সেত্তাবের ছেলে হযরত আলী (৪২)।
যাবজ্জীবন কারাদন্ডে দন্ডিতরা হলেন, নিহতের স্ত্রী ও শিবগঞ্জের পরানপুর বলিহারপুর গ্রামের সায়েরা খাতুন(৩৪),ছোট মহেষপুর গ্রামের মৃত রবুর ছেলে মো.আসলাম(৪৬), পরানপুর বলিহারপুর গ্রামের মো. আলাউদ্দিনের ছেলে মো.মহবুল(৪৯) ও একই গ্রামের ােম.মংলুর ছেলে মো.মিটুল(২৯।
নিহত রাকিব আলী বাবু শিবগঞ্জের পরানপুর বলিহারপুর গ্রামের নাইমুল ইসলামের ছেলে।
রায় ঘোষণাকালে বিচারক তাঁর পর্যবেক্ষনে জানান,মূলত: নিহতের স্ত্রী সায়েরা খাতুনের সাথে মামলার ১ নং আসামী মেহরাব হোসেন বাচ্চুর পরকীয়া প্রেমের জেরে রাকিব আলী বাবুকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করে মরদেহ নদীতে ফেলে দেয়া হয়। এমন হত্যাকান্ডের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হওয়া আবশ্যক।
সরকারী আইনজীবী আঞ্জুমান আরা বেগম জানান,২০১৫ সালের ২৯ মার্চ রাতে নিহত বাবুকে পরানপুর বলিহারপুর গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে পিকনিক খাবার নাম করে ডেকে নিয়ে যায় দন্ডিতরা। পরে ওই রাতেই তাকে ইট দিয়ে থেথলিয়ে,গলায় ফাঁস দিয়ে ও ধারাল অস্ত্র দিয়ে আঘাত করে হত্যা করে। এরপর মরদেহ পাশের মহানন্দা নদীতে ফেলে দেয়। পর দিন ৩০ মার্চ সকালে নদীতে জেলেদের জালে বাবু’র মরদেহ উদ্ধার হয়।
এঘটনায় ওইদিনই বাবুর পিতা শিবগঞ্জ থানায় মামলা করেন। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও শিবগঞ্জ থানার তৎকালীন উপপরিদর্শক (এসআই) আব্দুল করিম ২০১৫ সালের ১৩ জুলাই আদালতে ১৫জনকে অভিযুক্ত করে চার্যশীট দাখিল করেন।
২আসামীর স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী, ১০জনের সাক্ষ্য,প্রমাণ ও শুনানী শেষে আদালত বুধবার মামলার রায় ঘোষণা করেন। আসামী পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন আ্যাড.সাদরুল আমীন। #