এক প্রেমিকা যখন বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে অনশনে,তখনই অপর প্রেমিকাকে নিয়ে পালালেন প্রেমিক শিবগঞ্জে একই সঙ্গে দুজনের সাথে প্রেম,প্রতারক প্রেমিক গ্রেপ্তার

আপডেট: চাঁপাইনবাবগঞ্জ

238

জাকির হোসেন পিংকু,চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি ||
চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলায় একই সাথে দুই মাদ্রাসা ছাত্রীর সাথে প্রেম করার পর এক প্রেমিকা যখন বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে অনশনে তখন অপর প্রেমিকাকে নিয়ে পালিয়ে যান প্রেমিক। পরে পালিয়ে যাওয়া নাবালিকা প্রেমিকার পিতা মেয়েকে অপহরণ করা হয়েছে দাবী করে থানায় অভিযোগ করলে ফেঁসে যান প্রেমিক। পুলিশ প্রতারক প্রেমিক মিজানুর রহমানকে (২৩) গত সোমবার (৮’জুলাই) দুপুরে শিবগঞ্জের দাদনচক কলেজ মোড় এলাকা থেকে আটক করে। এসময় ওই নাবালিকাকেও  উদ্ধার করে। উদ্ধারের পর ওই নাবালিকা মিজানুরের সাথে প্রেমের সম্পর্ক অস্বীকার করে। 
মিজানুর রহমান শিবগঞ্জের বিনোদপুর ইউনিয়নের কালিগঞ্জ সরদারটোলা গ্রামের  মো. মাহলালের ছেলে।
এ ঘটনার  পর শিবগঞ্জ পুলিশ ওই যুবক ও প্রতারণার শিকার দুই মেয়েকে অভিভাবকসহ নিয়ে যান পুলিশ সুপার অফিসে। পুলিশ সুপার মোজাহিদুল ইসলাম সোমবার সন্ধ্যায় তার অফিসে সাংবাদিকদের ডেকে ঘটনার বিস্তারিত বর্ণনা করেন।
ঘটনার বিবরণে জানা যায়, ৪ বছর থেকে কামিল পড়–য়া এক মাদ্রাসা ছাত্রীর(২১) সাথে প্রেমের সম্পর্ক মিজানুরের। তাদের মধ্যে দৈহিক সম্পর্কও  ছিল। ইদানিং মেয়েটি বিয়ের জন্য চাপ দিলে মিজানুর গড়িমসি শুরু করে। এ অবস্থায় মেয়েটি গত শনিবার (৬’জুলাই) বিকেল থেকে মিজানুরের বাড়িতে অবস্থান নিয়ে বিয়ের দাবিতে অনশণ শুরু করে।
এদিকে এ অবস্থার মধ্যেই মিজানুর পরদিন রোববার (৭’জুলাই) বিকেলে তার দাবীকৃত আরেক প্রেমিকা ৮ম ¤্রিেণর মাদ্রাসা ছাত্রীকে (১৪) নিয়ে পালিয়ে যান। নাবালিকা মেয়েটির পিতা এ ঘটনায় ওই রাতেই শিবগঞ্জ থানায় মেয়ে অপহরণের লিখিত অভিযোগ করেন। এরপর সোমবার দুপুরে পুলিশ মিজানুরকে আটক করে।
এ ঘটনায় সোমবার রাতেই মিজানুরের পুরাতন প্রেমিকা শিবগঞ্জ থানায় বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণের অভিযোগে নারী ও শিশু নির্যতণ দমন আইনে মামলা করেন। অপরদিকে একই সময় একই আইনে অপহরণের অভিযোগে মামলা করেন নাবালিকা প্রেমিকার পিতা।
শিবগঞ্জ পুলিশ জানিয়েছে,মঙ্গলবার (৯’জুলাই) দুপুরে দুটি মামলাতেই মিজানুরকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতে তোলা হয়েছে। এছাড়া মেয়েদের মেডিক্যাল পরীক্ষা ও আদালতে ২২ ধারায় জবানবন্দী রেকর্ড প্রক্রিয়াধিণ রয়েছে।