বিশ্বনাথের ভেঙ্গে যাওয়া ৯৯% সড়ক সংস্কারের দাবীতে মানববন্ধন

58
gb

বিশ্বনাথ প্রতিনিধি::

সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলার আট ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় থাকা সড়কগুলোর মধ্যে প্রায় ৯৯%
সড়কগুলো হাজার গর্তে ভরপুর হওয়াতে উপজেলাবাসীকে দীর্ঘদিন ধরে চরম দূর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। সরকারের উন্নয়নে
বাংলাদেশ এগিয়ে গেলেও যোগাযোগখ্যাতে অনেক পিছিয়ে পড়েছে বিশ্বনাথ উপজেলা। দীর্ঘদিন ধরে উপজেলাবাসী ভেঙ্গে
যাওয়া উপজেলার প্রায় ৯৯% সড়কগুলো সংস্কারের দাবী করে আসছেন। কিন্তু কাজের কাজ কিছুই হচ্ছে না। সড়ক
সংস্কারের জন্য বরাদ্ধ আসলে ঠিকাদার নিচ্ছেন কাজ, কাজ নিলে ফেলে রাখছে দিনের পর দিন। আবার যে ঠিকাদার কাজ
নেয় তাকেও আবার এলাকা থেকে তুলে দিতে হচ্ছে বরাদ্ধের অতিরিক্ত টাকা। যেগুলো বাস্তবায়িত হচ্ছে সেগুলোতে থাকে
চরম অনিয়ম-দূর্নীতি, দেখার যেনো কেউ নেই। তাই উপজেলাবাসীর সড়ক দূর্ভোগ কমার পরিবের্ত দিন দিন বেড়েই চলছে।
উপজেলাবাসীর দূর্ভোগ লাগবে ভেঙ্গে যাওয়া প্রায় ৯৯% সড়ক সংস্কারের দাবীতে রোববার দুপুরে উপজেলার বাসিয়া সেতুর
ওপর ‘সচেতন বিশ্বনাথ সমাজ কল্যাণ সংস্থার’ ব্যানারে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। তাদের সাথে একাত্বত্ত্বা
পোষন করে ‘রাহে জান্নাত হেল্প সোসাইটি’সহ বিভিন্ন সামাজিক-রাজনৈতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। সচেতন বিশ্বনাথ সমাজ
কল্যাণ সংস্থার আহবায়ক ফজল খানের সভাপতিত্বে ও সদস্য সচিব আবদুল বাতিনের পরিচালনায় মানববন্ধন কর্মসূচিতে
বক্তব্য রাখেন, বিশ্বনাথ প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক প্রনঞ্জয় বৈদ্য অপু, বিশ্বনাথ সদর ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বার হেলাল
উদ্দিন, ইউনুছ আলী, সংগঠক শানুর আলী জয়দু, শেখ ফজর রহমান, বিভাংশু গুণ বিভু, শফিক আহমদ পিয়ার, সায়েদ
আহমদ, শওকত আলী, শফিক ইসলাম সফিক, সিরাজুল ইসলাম রুকন, শেখ কাওছার আলী, হেলাল উদ্দিন, মিয়াদ আহমদ,

জুমন আহমদ, রুহুল আমিন ও সুলেমান আহমদ সাজু। মাবনবন্ধনে বক্তারা বলেন, দীর্ঘদিন ধরে উপজেলার বিভিন্ন সড়ক
কার্পেটিং উঠে গিয়ে বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। আর এসব গর্তে পড়ে বিভিন্ন যানবাহন সড়ক দুর্ঘটনায় কবলিত হচ্ছে। ওই
সড়কগুলো দিয়ে এলাকাবাসী জীবনের ঝুকি নিয়ে চলাচল করে আসছেন। কিন্তু ওই সড়কগুলো সংস্কার করার জন্য কোনো
পদক্ষেপ গ্রহন করা হচ্ছেনা। অবিলম্ভে সড়কগুলো সংস্কার করার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষে প্রতি বক্তারা আহবান জানান।
মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন বিশ্বনাথ থিয়েটারের সভাপতি আনহার আলী, বিশ্বনাথ প্রেসক্লাবের সদস্য নূর উদ্দিন, আবুল
কাশেম, সাংবাদিক রোহেল উদ্দিন, বদরুল ইসলাম মহসিন, বিশ্বনাথ সাংবাদিক ইউনিয়নের সদস্য পাভেল সামাদ, সংগঠক
জাবেদ আহমদ, সাঈদ মিয়া, জসিম উদ্দিন, মাছুম আহমদ, বেলাল হোসেন, ওয়াহিদুর রহমান, জামাল মিয়া, জায়েদ উদ্দিন,
জয়নুল আবেদিন, কামাল হোসেন, জালাল উদ্দিন, তুফায়েল আহমদ, ফয়সল মিয়া, সাঈদুর রহমান, জুনেদ আহমদ, রফিক
আলম, আবদুস শহিদ, খলিল রহমান, সাদ্দাম হুসেন, আলতাফ হুসেন, নিজাম উদ্দিন, জুনেদ আহমদ, শাব্বির আলম, জুবেল
মিয়া, আবদাল আবেদিন, মাছুম আহমাদ, সাজন মিয়া, সালমান মিয়া, জাকির মিয়া, সোহাগ আলী, শিপু মিয়া, রাসেল মিয়া,
শাহজাহান, ইব্রাহীম আলী, হাসান আহমদ, এমরান মিয়া, জাবের আহমদ, কাশিম আহমদ, দিলোয়ার হুসেন, জুয়েল মিয়া,
সুমন আলী, মিন্টু, মারুফ মিয়া, দিলু মিয়া, তুফায়েল আহমদ, তুলা মিয়া, সবুজ দাশ, ওলি মিয়া, মাহবুব মিয়া প্রমুখসহ
বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

gb
মন্তব্য
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More