সিলেট লেখক ফোরাম কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র উদ্বোধন করলেন জাপান বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক পি.আর. প্ল্যাসিড

125
gb

গরিব ও অসহায়দের সম্পূর্ণ ফ্রি কমপিউটার এবং সেলাই শেখাতে সিলেট লেখক ফোরাম কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র উদ্বোধন করা হয়েছে। ১৯ জুন বুধবার ফোরামের উদ্যোগে সিলেট জেলার বিশ্বনাথের রামপুরস্থ ইসহাক একাডেমীতে এ প্রশিক্ষণ কেন্দ্র উদ্বোধন করা হয়। ফোরাম সভাপতি গীতিকার কবি নাজমুল ইসলাম মকবুলের সভাপতিত্বে একাডেমী অডিটরিয়ামে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান ও আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন জাপানের খ্যাতিমান লেখক সাংবাদিক, বিবেকবার্তা সম্পাদক, জাপান বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক পি.আর. প্ল্যাসিড। প্রধান আলোচকের বক্তব্য রাখেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী রেজিস্ট্রার নাট্যকার ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব মোঃ হেদায়েত উল্লাহ তুর্কী। আলোচনা অনুষ্ঠান উদ্বোধন করেন প্রবীণ সাংবাদিক কলামিষ্ঠ আফতাব চৌধুরী, ফ্রান্স বাংলা প্রেসক্লাবের ভাইস প্রেসিডেন্ট লেখক কলামিস্ট দেলওয়ার হোসেন সেলিম। সম্মানিত অতিথির বক্তব্য রাখেন লন্ডন টাইমস নিউজের ডাইরেক্টর এবং হোয়াইটহার্ট গ্রুপের চেয়ারপার্সন ছাদেক আহমদ। কাওছার আহমদের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ইসহাক একাডেমীর প্রতিষ্ঠাতা ও পরিচালনা কমিটির সভাপতি মোঃ মিজানুর রহমান মোজাহিদ, রামসুন্দর সরকারী অগ্রগামী মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নজমুল ইসলাম, ইসহাক একাডেমীর প্রিন্সিপাল ইলিয়াছ আলী, সমাজসেবী ও শিক্ষানুরাগী আমির আহমদ, সমাজসেবী শিক্ষানুরাগী ও মানবাধিকার কর্মী কাজী শাহেদ। ছাত্র ছাত্রীদের পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখেন বিদ্যালয়ের ছাত্রী জান্নাতুল ফেরদৌস সুমাইয়া। পবিত্র কোরআন তিলাওয়াত করেন বিদ্যালয়ের শিক্ষক ক্বারী রোহেল আহমদ। প্রধান অতিথির বক্তব্যে পি.আর. প্ল্যাসিড বলেন, সিলেট লেখক ফোরাম সব সময়ই ব্যতিক্রম কর্মসূচি পালনে পারদর্শী। বাংলাদেশের বিভিন্ন অঞ্চল ছাড়াও আন্তর্জাতিক পরিমন্ডলেও তাদের কার্যক্রম চলছে দুর্বার গতিতে। আজ লেখক ফোরাম কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র প্রতিষ্ঠা করে প্রমাণ করলেন লেখক ফোরাম সব সময়ই ব্যতিক্রম কাজে বিশ্বাসী। আমার পক্ষ থেকে এই কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে ল্যাপটপ কমপিউটার ও সেলাই মেশিন প্রদান করে আমিও এর সহযাত্রী হতে চাই। প্রধান আলোচকের বক্তব্যে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী রেজিস্ট্রার হেদায়েত উল্লাহ তুর্কী বলেন, সিলেট লেখক ফোরামের ব্যতিক্রমী বিভিন্ন অনুষ্ঠানে উপস্থিত হবার সৌভাগ্য আমার হয়েছে। তারা সব সময় প্রশংসনীয় কাজ করে যাচ্ছেন, তাই ঢাকা থেকে আমরা বার বার ছুটে আসি চমৎকার এসব আয়োজনে। উদ্বোধকের বক্তব্যে সাংবাদিক কলামিষ্ট আফতাব চৌধুরী বলেন, আমি লেখক ফোরাম নেতৃবৃন্দের সাথে শেকড়ের সন্ধানে অভিযাত্রায় জ্ঞানের সাগর দুরবীন শাহ, মরমী কবি হাছন রাজা, বাউল সম্প্রাট শাহ আব্দুল করিমের বাড়ীসহ সিলেট বিভাগের বিভিন্ন অঞ্চলে আয়োজিত চমৎকার অনুষ্ঠানগুলোতে শরিক হয়েছি। ফোরামের প্রতিটি অনুষ্ঠানই আমার কাছে ব্যতিক্রম এবং প্রাণবন্ত মনে হয়েছে। ফ্রান্স বাংলা প্রেসক্লাবের ভাইস প্রেসিডেন্ট দেলওয়ার হোসেন সেলিম বলেন, আজকের ব্যতিক্রম আয়োজন সিলেটের সাহিত্য ও সংস্কৃতির জগতে আরেকটি মাইলফলক হিসেবে জ্বলজ্বল করবে। সভাপতির বক্তব্যে কবি নাজমুল ইসলাম মকবুল বলেন, গরিব ও অসহায়দের সম্পূর্ণ ফ্রি কমপিউটার এবং সেলাই শেখাতে আমরা দুটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সিলেট লেখক ফোরাম কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র চালু করতে সক্ষম হয়েছি। সকলের সহযোগিতায় এর পরিধি আরও বাড়ানোর পরিকল্পনা আমাদের রয়েছে।

gb
মন্তব্য
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More