সুনামগঞ্জে বঙ্গবন্ধু মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হচ্ছে, আসছে রেল যোগাযোগঃ পরিকল্পনামন্ত্রী

51

আগামী দুই বছরের মধ্যে সুনামগঞ্জে রেলপথ চালু হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম.এ মান্নান এমপি।

একনেকের আগামী সভায় সুনামগঞ্জ রেললাইন চালুর প্রকল্প পাস করার জন্য তিনি বদ্ধপরিকর বলে জানান।

এছাড়াও সুনামগঞ্জে এই প্রথম জাতীর জনক শেখ মুজিবুর রহমানের নামে ‘বঙ্গবন্ধু মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়’ হচ্ছে বলে জানান তিনি।

তিনি বলেন, ‘ভাটি এলাকার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মমত্ববোধ কাজ করে। তিনি এ অঞ্চলের উন্নয়নের ব্যাপারে খুবই আন্তরিক। তার অধীনেই আগামী দুই বছরের মধ্যে সুনামগঞ্জে রেল আসবে। আমার বিশ্বাস রেলের প্রকল্প একনেকে পাস করেই আমি মরব।’

গত শনিবার সুনামগঞ্জের শহীদ আবুল হোসেন মিলনায়তনে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদের আয়োজনে আলোচনা সভা, সংবর্ধনা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে পরিকল্পনামন্ত্রী এম.এ মান্নান এমপি এসব কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে বক্তব্যে সুনামগঞ্জের উন্নয়ন পরিকল্পনা ও বাস্তায়নকৃত প্রকল্পসমূহ প্রসঙ্গে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, ‘সুনামগঞ্জ একদিন সারাদেশের রোল মডেলে তৈরি হবে। দেশের অন্যতম এ জেলার সম্ভাবনাময় জনগণকে কাজে লাগাতে হবে।’

এর পর তিনি বলেন, ‘আমি দৃঢ় প্রতিজ্ঞ শেখ হাসিনার এই আমলেই সুনামগঞ্জে রেল আসবে।একনেকের আগামী সভায় সুনামগঞ্জ রেললাইন চালুর প্রকল্পটি পাস করা হবে।’

সভায় সুনামগঞ্জের ভবিষ্যত উন্নয়ন কর্মকাণ্ড প্রসঙ্গ তুলে ধরে বলেন, ‘সুনামগঞ্জ আমার বাপ দাদার ভিটা। এখানে জাতীর জনক শেখ মুজিবুর রহমানের নামে বঙ্গবন্ধু মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হচ্ছে। এছাড়াও নার্সিং ইন্সটিটিউট, হেলথ টেকনোলজি ইন্সটিটিউট নির্মাণাধীন রয়েছে। শীঘ্রই বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠিত হচ্ছে এখানে।’

এই সরকারের আমলে সুনামগঞ্জের সঙ্গে সারাদেশের সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থায় অভূতপূর্ব উন্নয়ন এসেছে জানিয়ে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, ‘ইতিমধ্যে ময়মনসিংহের সঙ্গে সুনামগঞ্জের সীমান্ত সড়ক যোগোযোগ ব্যবস্থা চালু করেছি আমরা। সুরমা নদীর ওপর হালুয়ারঘাট-দারারগাঁও সেতু নির্মাণ করেছি।’

তাহিরপুরের বিন্নাকুলি-গড়কাটির মধ্যবর্তী জাদুকাঁটা নদীর ওপর দৃষ্টিনন্দন সেতুর নির্মাণ হচ্ছে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘সুনামগঞ্জের এ জনপদ অতীতের মতো আর পিছিয়ে থাকবে না।’

এছাড়াও গণদাবির প্রেক্ষিতে তাহিরপুরের বাণিজ্যিক কেন্দ্র বাদাঘাটকে জেলা শহরের সঙ্গে সরাসরি সড়ক যোগাযোগের আওতায় আনতে বিশ্বম্ভরপুর-তাহিরপুরের মধ্যবর্তী মিয়ারচর-পাঠানপাড়ায় জাদুকাঁটা নদীর ওপর দ্বিতীয় জাদুকাটা সেতু নির্মাণ পরিকল্পনার কথা উল্লেখ করেন মন্ত্রী এম.এ মান্নান।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন মুক্তিযোদ্ধা ও গবেষক অ্যাডভোকেট বজলুল মজিদ চৌধুরী খসরু। অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন – সুনামগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য বিরোধী দলীয় হুইপ পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ এমপি, সিভিল সার্জন ডা. আশুতোষ দাশ, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক শরীফুল ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ হায়াতুন্নবী প্রমুখ।

মন্তব্য
Loading...