ট্রাম্পের হুশিয়ারি বাড়াবাড়ি করলে ইরানকে চড়ামূল্য দিতে হবে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক।।

হরমুজ প্রণালির কাছে আমিরাতের চারটি পণ্যবাহী জাহাজে হামলার ঘটনায় বেজায় চটেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

এ ঘটনায় ইরানকে দোষী সাবস্ত করে ট্রাম্প বলেন, বেশি বাড়াবাড়ি করলে তেহরানকে চরম মূল্য দিতে হবে। খবর রয়টার্সের।

পারস্য উপসাগরে মার্কিন রণতরী ও বি-৫২ যুদ্ধবিমান পাঠানোর পর ইরানের প্রতিক্রিয়ার পর সোমবার ট্রাম্প এ হুমকি দেন।

একের পর এক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেও ইরানকে দমাতে না পেরে এবার সামরিক শক্তি প্রয়োগের হুমকি দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র।

ইরানের সঙ্গে ইচ্ছাকৃতভাবে যুদ্ধ বাধানোর জন্য বিপজ্জনকভাবে এগিয়ে আসছে যুক্তরাষ্ট্র। আর এর জন্য প্রয়োজনীয় তথ্যের জোগান দিচ্ছে ইসরাইল। এই গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে ট্রাম্প প্রশাসন এ পদক্ষেপ নিতে যাচ্ছে।

পারস্য উপসাগরীয় অঞ্চলে মোতায়েন মার্কিন সেনাদের ওপর ইরানি হামলার পরিকল্পনা সম্পর্কে নিশ্চিত প্রমাণ রয়েছে বলে দাবি করেন মার্কিন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জন বোল্টন ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও।

জবাবে ইরানের ইসলামী বিপ্লবী গার্ড বাহিনী (আইআরজিসি) বলেছে, অতীতে মধ্যপ্রাচ্যের মার্কিন ঘাঁটি ও রণতরীগুলো আমাদের জন্য হুমকি হিসেবে গণ্য হলেও সেগুলো এখন আমাদের জন্য সুযোগ হিসেবে বিবেচিত হচ্ছে।

আইআরজিসির অ্যারোস্পেস ডিভিশনের কমান্ডার আমির আলী হাজিজাদেহ জানান, এগুলো (রণতরী) এখন আমাদের জন্য ‘টার্গেট বোর্ডে’র মতো।
ইরানকে চাপে রাখতে পারস্য উপসাগরে পাঠানো মার্কিন বিমানবাহী রণতরী ইউএসএস আব্রাহাম লিংকনে রয়েছে ৪০-৫০ বিমান ও ছয় হাজার সেনা।

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন তবে আপনি চাইলে অপ্ট-আউট করতে পারেন Accept আরও পড়ুন