জণসমর্থনে এগিয়ে চেয়ারম্যান প্রার্থী সোয়েব ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী ফারহানা

472

ফয়সাল মাহমুদ, মৌলভীবাজার জেলা ||

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের রেশ কাটতে না কাটতেই উপজেলা পরিষদ নির্বাচন নিয়ে সরগরম হয়ে উঠেছে রাজনৈতিক অঙ্গন।

মৌলভীবাজার জেলার বড়লেখা উপজেলা পরিষদ নির্বাচন জমে উঠেছে। চা-আড্ডা থেকে শুরু করে পাড়ামহল্লা সবখানে উপজেলা নির্বাচনের আলোচনায় সরগরম হয়ে পড়েছে। এই নির্বাচনে চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে আলোচনায় উঠে এসেছেন দুই নতুন মুখ। এরা হলেন- চেয়ারম্যান প্রার্থী সোয়েব আহমদ ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ফারহানা বেগম।

উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীদের মাঝে যেমন নির্বাচনী আবহাওয়া বইতে শুরু করেছে তেমন ভাবেই সাধারন জনগণের মাঝেও শুরু হয়েছে। জনগণের চিন্তাভাবনায় কে হতে যাচ্ছে উপজেলা চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান। উপজেলায় একাদিক চেয়ারম্যান প্রার্থী ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী প্রত্যেকেই নিজেদের ব্যাক্তিগত ইমেজ তুলে ধরে ব্যাস্থতায় সময় পার করছেন।

অনুসন্ধানে জানা যায় এবারের নির্বাচনে সাধারন জনগণের ভাবনা একটু ভিন্ন। প্রতিবারের ন্যায় এবার তারা ভিন্ন চিন্তা করছেন, প্রত্যেকবার ভোট দিয়ে জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত করে নির্বাচনের পরে আর তাঁদের খোঁজে পাওয়া যায় না। এবার তাঁরা এমন জনপ্রতিনিধিকে ভোট দিতে চান, যিনি জনগণের সাথে মিশতে পারবেন এবং জনপ্রতিনিধি হিসাবে জনগণের সেবা করবেন।

নির্বাচন নিয়ে উপজেলার বিভিন্ন গ্রামের বেশ কিছু তরুন ভোটারের কাছে প্রশ্ন করা হয়, এবারের উপজেলা চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে আপনি কাকে বেছে নিবেন? এমন প্রশ্নের উত্তরে তারা বলেন, অতীতে যিনি এই পদ-দুটিতে দায়িত্ব পালন করেছেন নির্বাচনের পরে আমরা তাঁদের কখনই দেখি নাই। আমরা তাদের চিনি শুধুমাত্র পোষ্টার ব্যানারে নয়তো তাদেরকেও ভালো করে চিনতাম না। তবে এবার শুনতে পাচ্ছি নতুন মুখ উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদের জন্য তরুন বয়োবৃদ্ধ রাজনৈতিক অরাজনৈতিক সবার আস্থা স্বতন্ত্র প্রার্থী সোয়েব আহমদ ঘোড়া প্রতীক এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদের প্রার্থী সৃজনশীল মনোভাব শিক্ষিত ও মার্জিত নারী নেত্রী ফারহানা বেগম ফ্যান প্রতীক নিয়ে প্রার্থী হয়েছেন। আমরা তাঁদের চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত করার লক্ষে প্রচারণা করব। তাঁদের নির্ধিতায় জয়লাভ করাতে আমরা সকলে তাদের ভোট দিবো।

সরেজমিনে গিয়ে সাধারন ভোটারের মতামত জানতে চাওয়া হলে, উপজেলার কেছরিগুল গ্রামের আব্দুল মন্নান এর ছেলে আতিকুল বলেন,
বর্তমানে বড়লেখা উপজেলায় সবচেয়ে আলোচিত এবং প্রচার প্রচারণায় এগিয়ে রয়েছেন সর্বদলের পছন্দের প্রার্থী সোয়েব আহমেদ। নির্বাচনকে সামনে রেখে তিনি দলীয় সর্বদলীয় নেতাকর্মী ও জনসাধারণের সাথে নিয়মিত গনসংযোগ করে যাচ্ছেন তাই আমার এবং আমাদের তরুনদের পছন্দের প্রার্থী সোয়েব আহমদ। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সম্পর্কে জানতে চাইলে বলেন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান হিসেবে আমরা এইবার নতুন মুখ ফারহানা বেগমকে নির্বাচিত করব বলে চিন্তা করছি।

উপজেলার ভোলারকান্দি গ্রামের ব্যবসায়ী সুন্দর আলী সুমন বলেন,
চেয়ারম্যান হিসেবে তরুনদের ভরসাস্থল সোয়েব আহমদ জনগণের সাথে মতবিনিময় এবং গণ সংযোগ চালিয়ে যাচ্ছেন নিরবিচ্ছিন্ন তাই আমরা চেয়ারম্যান হিসেবে নির্বাচিত করার জন্য ভোট দিবো সোয়েব আহমদকে এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সম্পর্কে বলেন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শুধুমাত্র নামেই কাজে নয়, বর্তমান মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানকে আমাদের এলাকার বেশিরভাগ লোকজন চিনেই না, কিন্তু ফারহানা বেগমকে ইতিমধ্যে আমাদের এলাকার সবার কাছে পরিচিত এক মুখ হয়ে উঠেছেন। সুমনের স্ত্রী রাশেদা বেগম বলেন, ফারহানা বেগমের মনোভাবনাগুলো আমাদের নারী সমাজকে জাগ্রত করেছে তাই আমরা নারী সমাজকে এগিয়ে নিয়ে যেতে ফারহানা বেগমকে ভোট দিবো তিনি আরো বলেন আমরা জানি ফারনা বেগম ফ্যান প্রতীক নিয়ে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদের প্রার্থী, তিনি অত্যন্ত শিক্ষিত ও মার্জিত নারী নেত্রী।

উপজেলার সাধারণ ভোটাররা ধারণা করছেন উপজেলা নির্বাচনে এবার চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে অধিক সংখ্যক ভোটে নির্বাচিত হয়ে পরিষদে আসবেন নতুন মুখ।

মন্তব্য
Loading...