চাঁপাইনবাবগঞ্জে সাবেক স্ত্রী হত্যার দায়ে যুবকের ফাঁসি

89
gb

জাকির হোসেন পিংকু,চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি  ||

চাঁপাইনবাবগঞ্জে সাবেক স্ত্রী ফারজানা আখতার সীমাকে (২২) ছুরিকাঘাতে হত্যার দায়ে সুমন আলী (২৭) নামে এক যুবককে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃতুদন্ড কার্যকর করার আদেশ দিয়েছেন আদালত। সেই সাথে তাকে ১ লক্ষ টাকা অর্থদন্ডও প্রদান করা হয়েছে।  সোমবার(৪’ফেব্রুয়ারী) দুপুরে চাঁপাইনবাবগঞ্জ অতিরিক্ত দায়রা জজ শওকত আলী এ রায় প্রদান করেন।
রায় প্রদানের সময় আদালতে মামলার একমাত্র আসামী জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার চৈতন্যপুর মিয়াপাড়া গ্রামের আমির হোসেনের ছেলে সুমন আলী হাজির ছিলেন। নিহত সীমা জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার চৈতন্যপুর বাজারপাড়া গ্রামের নুর আলম বাবুর মেয়ে।
মামলার নথি সূত্রে ও সরকারী কৌসুলী আঞ্জুমান আরা বেগম জানান, ২০১২ সালে বিয়ে হয় সীমা ও সুমনের। দম্পতির একটি পুত্র সন্তানও জন্ম নেয়। কিন্তু বিয়ের পর থেকে স্বামীর লাগাতার অত্যাচারের অভিযোগে সীমা ২০১৫ সালে  বিবাহ বিচ্ছেদ নেন।
কিন্তু সুমন সাবেক স্ত্রী সীমার নিকটে থাকা সন্তানকে দেখার জন্য প্রায়ই সীমার পিতার বাড়ির আশপাশে ঘোরাঘুরি করত। এমনকি সে আড়াই বছরের সন্তানকে ছিনিয়ে নেবারও চেষ্টা করে। এনিয়ে বিরোধ সৃষ্টি হলে সে সীমার পরিবারকে ‘দেখে নেবার’ হুমকিও দেয়।
এরই জেরে গত ২০১৬ সালের ৭ অক্টোবর রাতে সুমন সীমাদের বাড়িতে প্রবেশ করে সীমা ও তার মা দেলুয়ারা বেগমকে ছুরিকাঘাত করতে থাকে। তাকে বাধা দেবার চেষ্টা করলে সে এই মামলার বাদী সীমার ছোট ভাই কামরুজ্জামানকেও (২২) ছুরিকাঘাত করে। ছুরিকাঘাতে সীমার ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয়। তার মা ও ভাইকে আহতাবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। গ্রামবাসি সুমনকে আটকে পুলিশে খবর দেয়।
এ ঘটনায়  ২০১৬ সালের ১০ অক্টোবর শিবগঞ্জ থানায় মামলা হয়। তদন্তকারী কর্মকর্তা ও শিবগঞ্জ থানার পুলিশ পুরদর্শক সরোয়ার রহমান ২০১৭ সালের ৬’জানুয়ারী আদালতে চার্যশীট দাখিল করেন। ১১ জনের সাক্ষ্য ও প্রমাণের ভিত্তিতে আদালত সোমবার দুপুরে একমাত্র আসামী সুমনের মৃত্যুদন্ডের রায় ঘোষণা করেন। আসামী পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন আ্যাড.শাহ জামাল। 

gb
মন্তব্য
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More