টাওয়ার হামলেটসে বন্ধ হয়ে যাচ্ছে কমিউনিটি ল্যাঙ্গুয়েজ সার্ভিস : ক্যাবিনেট মিটিংয়ে সিদ্ধান্ত

218
gb

জিবি নিউজ24 ডেস্ক //

গত শুক্রবার ২১ ডিসেম্বর রাতে বাংলাদেশ টিচার্স এসোসিয়েশনের উদ্যোগে পূর্ব লন্ডনের এক রেস্টুরেন্টে কমিউনিটি নেতৃবৃন্দ নিয়ে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত সভায় সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ শিক্ষক এসোসিয়েশনের সভাপতি আবু হোসেন। সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল বাছিত চৌধুরীর পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় বলা হয় কমিউনিটি ল্যাংগুয়েজ সার্ভিস ১৯৮২ সাল থেকে বাংলা ভাষার সাথে সাথে চাইনিজ, মেরিডিয়ান, রাশিয়ান, লিথুনিয়া, এরাবিক এবং সোমালিয়ান ভাষা বিভিন্ন সংগঠনের মাধ্যমে চালু ছিল। কিন্তু অত্যন্ত দুঃখের বিষয় ২০১৬ সালে ১.২ মিলিয়নের এই ফান্ডিং কেটে নিয়ে মাত্র ৬০০ হাজার পাউন্ডে নিয়ে আসা হয় যার কারনে অনেক কমিউনিটি সেন্টার এবং বাংলা ভাষা এবং অন্যান্য ভাষা পড়ানোর যে সুবিধা কমিউনিটি ছেলে মেয়েরা উপভোগ করছিল তা থেকে তাদেরকে বঞ্চিত করা হয়।

গত ২১ ডিসেম্বর টাওয়ার হামলেট ক্যাবিনেট মিটিংয়ে বাংলা এবং অন্যান্য ভাষার এই কমিউনটি ল্যাঙ্গুয়েজ সার্ভিসকে সম্পূর্ণ ভাবে বিলুপ্ত করার জন্য আগামী ২/৩ বছরের মধ্যে সমস্ত বাজেট কেটে দেয়ার একটি সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে। এখানে উল্লেখ্য যে টাওয়ার হামলেটস প্রায় অধিকাংশ সেকন্ডারি স্কুলগুলো থেকে ইতিমধ্যে বাংলা ভাষা শিক্ষা প্রদান বন্ধ হয়ে গেছে।
কমিউনিটি ল্যাঙ্গুয়েজ সার্ভিস বন্ধ হলে গত ৩৫ বছরের প্রতিষ্টিত অত্যন্ত সফল একটি ডিপার্টমেন্টকে বিলুপ্ত করা হবে।
প্রায় ১00র উপরে শিক্ষকের চাকরি হারাবেন। প্রায় দুই হাজার ছাত্র-ছাত্রী শিক্ষা গ্রহণ থেকে বঞ্চিত হবে। প্রায় ৪৭ টি স্থানীয় কমিউনিটি সেন্টার বন্ধ হয়ে যাবে। এ সমস্ত কমিউনিটি সেন্টারগুলো বাংলা ভাষা এবং বাঙ্গালীদের সংস্কৃতি বিকাশে সূতিকাগার হিসেবে পরিচিত ছিল।
সভায় বলায় অত্যন্ত পরিতাপের বিষয় এই যে বাংলা ভাষাভাষী অনেক কাউন্সিলর থাকা সত্ত্বেও এর বিরুদ্ধে কোন জোর প্রতিবাদ হয়নি। কাউন্সিলের এই তথাকথিত সিদ্ধান্তের প্রতি উপস্থিত নেতৃবৃন্দ তুমুল প্রতিবাদ করেন এবং অচিরেই এই অন্যায় এবং অবিশ্বাস্য সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে পিতা-মাতা, শিক্ষক ও সংগঠন এবং সকল শ্রেণির মানুষকে নিয়ে সম্মিলিতভাবে এক দুর্বার আন্দোলন গড়ে তোলার আহ্বান জানানো হচ্ছে।
সভায় বেশ কয়েকটি বিষয়ে কমিউনিটর মানুষের প্রতি আহবান জানিয়ে বক্তারা বলেন, আসুন আমরা সবাই প্রতিবাদ করি।আমাদের ন্যায্য অধিকার প্রতিষ্টা করি।
আমাদের মায়ের ভাষা মাতৃভাষাকে বাঁচান। এই মাল্টি কালচার সোসাইটিতে আপনার অধিকার রক্ষা করে আপনার মাতৃভাষায় ছাত্রছাত্রীদের শিক্ষা রক্ষার ক্ষেত্রে এগিয়ে আসুন।
♦টাওয়ার হ্যামলেট কাউন্সিল কমিউনিটি ল্যাগুয়েজ সার্ভিসকে বন্ধ করতে দেওয়া যাবে না
♦একশ্রেনীর সুবিধাবাদী নিজের স্বার্থের জন্য মাতৃভাষাকে অবমাননা করে হাজার ছেলেমেয়েদের মাতৃভাষা বাংলাসহ অন্যন্য জাতীর মাতৃভাষা শিক্ষা থেকে বঞ্চিত করার নীল-নক্সা বাস্তবায়নে মেতে উঠেছে।
♦এইসকল লোকেরা আমাদের কমিউনিটির জন্য বিষফোড়া। এদের সকল শক্তি দিয়ে প্রতিবাদ করতে হবে।
♦সব অভিভাবক কমিউনিটি নেতা কাউন্সিলরা এগিয়ে আসুন। প্রতিবাদ করুন। আমাদের ছেলেমেয়েদের লেখাপড়ার সুযোগ রক্ষার ক্ষেত্রে সোচ্চার হই।

উক্ত সভায় আলোচনায় অংশ নেন বাংলাদেশ টিচার্স এসোসিয়েশনের সভাপতি আবু হোসেন, বিশিষ্ট কমিউনিটি নেতা সাবেক মেয়র গোলাম মোর্তোজা, আলহাজ্ব আতিক মিয়া, আখলাকুর রহমান ফজলুর রহমান, সৈয়দ খাইরুল ইসলাম, সিরাজুল বাসিত চৌধুরী, মাসুদ আহমেদ, মিসবাহ কামাল, সালাম চৌধুরী মাহবুব হোসেন , মুজিবুল হক মনি, শাহানুর খান, হাসনা বেগম, ফারুক হোসেন মোহাম্মদ রফিক, আলী আকবর প্রমুখ।