Bangla Newspaper

সামনাসামনি শহিদের ‘প্রাক্তন’ বর্তমান, অর্থাৎ কারিনা ও মীরা রাজপুত তারপর কী হলো?

42

জিবি নিউজ24 ডেস্ক //

এক সময় কারিনার প্রেমে হাবুডুবু খেতেন শহিদ কাপুর। শুধু শহিদই নন, কারিনাও শাহিদ বলতে অজ্ঞান ছিলেন। প্রথম থেকেই শহিদ বা কারিনা কেউ তাঁদের সম্পর্কের কথা লুকোননি। এমনকি শহিদকে বিয়ে করার সিদ্ধান্তও নিয়ে ফেলেছিলেন বেবো।

জানা যায়, করিনা যখন শহিদের প্রেমে পরেন তখন তিনি মাছ মাংস সবই খেতেন। বিশেষ করে মাংস খেতে ভীষণই পছন্দ করতেন বেবো। তবে শহিদ কাপুর মাছ, মাংস খেতেন না। এক্কেবারেই শাকাহারি ছিলেন। আর তাই শহিদের প্রেমে হাবুডুবু কারিনা তখন মাছ-মাংস খাওয়া ছেড়ে দেন, শুধু মাত্র শহিদের জন্যই। একথা কফি উইথ করণে এসে প্রকাশ্যেই জানিয়েছিলেন কারিনার বোন কারিশমা।

যদি এসবই এখন অতীত। শহিদ-কারিনা, দুজনেই এখন আলাদা পথ বেছে নিয়েছেন। সাইফের সঙ্গে বিয়ে হওয়ার পর বেবো বেগম আবার প্রথম জীবনের মতোই মাছ, মাংস খাওয়া শুরু করেছেন। সে যাই হোক, সম্প্রতি ইশা আম্বানির বিয়ে সামনাসামনি হয়েছিলেন শহিদের ‘প্রাক্তন’ বর্তমান, অর্থাৎ কারিনা ও মীরা রাজপুত। তারপর কী হলো?

‘স্পটবয়’ সূত্রে খবর মুখোমুখি কারিনা ও মীরা দুজনেই একে অপরের সঙ্গে সৌজন্য বিনিময় করেন, হাসি মুখে একে অপরকে জড়িয়েও ধরেন। তারপর আবার দুজনেই অন্যদিকে চলে যান। হ্যাঁ, ঠিকই শুনছেন। এমনটাই নাকি ঘটেছে ১২ তারিখ বুধবার ইশা আম্বানি ও আনন্দ পিরামলের বিয়ের অনুষ্ঠানে।

জানা যাচ্ছে, বিয়ের অনুষ্ঠানে প্রথমে এসে পৌঁছান শহিদ কাপুর ও তাঁর স্ত্রী মীরা রাজপুত। আর ঠিক কয়েক মিনিট পরেই পৌঁছান কারিনা, সাইফ ও কারিশমা। স্বভাবতই মুখোমুখি হন শহিদের এই দুই প্রাক্তন ও বর্তমান। 

Comments
Loading...