যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের নুতন কমিটি: ওয়াশিংটনের সম্ভাব্য দুই প্রাথী – সভাপতি মনসুর সাধারন সম্পাদক শিব্বীর

289
gb
নিউইয়র্ক: যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের মেয়াদ শেষ হয়েছে বহু আগেই। গত কয়েক বছর ধরে জননেত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক নুতন কমিটি দেয়ার জোর গুঞ্জন শুনা গেলেও এখন পর্যন্ত বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সভানেত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের নুতন কমিটির কোন ঘোষনা দেননি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জাতিসংঘ সফরকালে প্রতি বছরই যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের মধ্যে জোর গুঞ্জন শুরু হয় যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের নুতন কমিটি নিয়ে। কিন্তু গত কয়েক বছর ধরে জননেত্রী নেত্রী শেখ হাসিনা কৃর্তক নুতন কমিটির ঘোষনা না আসায় নেতাকর্মীদের মধ্যে এক ধরনের হতাশা বিরাজ করছে।
এদিকে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের বর্তমান কমিটির সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমানের বিরুদ্ধে অভিযোগের কোন শেষ নেই। যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের ব্যর্থ নেতৃত্বের কারনে বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সকল শাখা প্রশাখায় অসন্তোষ আর কোন্দল ডালপালা মেলে আছে। সেপ্টেম্বরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জাতিসংঘ সফরকালে জননত্রেী শেখ হাসিনার সর্ম্বধনাস্থল ”নো মোর সিদ্দা” স্লোগানে ছিল মুখরিত। যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমানের ব্যর্থ নেতৃত্ব রাজনৈতিক অনভিজ্ঞতা সর্বোপরী আওয়ামী রাজনীতির পুর্ব অভিজ্ঞতা না থাকার ফলে সংগঠনের সর্বস্তরে ব্যাপক বিশৃংখলা তৈরী হয়েছে। ফলে নুতন কমিটির জন্য তৃনমুল নেতাকর্মীরা জননেত্রী শেখ হাসিনার ঘোষনার দিকে তাকিয়ে আছে।
এদিকে জানা যায় যে, যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সঠিক ও যোগ্য সভাপতি না পাওয়ায় জননেত্রী শেখ হাসিনা এখনো কোন ঘোষনা দেননি। জানা যায় যে, জননেত্রী শেখ হাসিনা ও তার পুত্র সজিব ওয়াজেদ জয় যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের দুটি গুরুত্বপূর্ণ পদে ওয়াশিংটন ভিত্তিক দুজন যোগ্য প্রার্থী খুঁঁজছেন। তবে এখন পর্যন্ত যোগ্য প্রার্থী খুঁজে না পাওয়ায় যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের কোন কমিটির ঘোষনা আসছেনা।
ওয়াশিংটনের আওয়ামী লীগের বিভিন্ন কমিটি সুত্রে জানা যায়, মেট্রো ওয়াশিংটন আওয়ামী লীগের প্রাক্তন সভাপতি ড. খন্দকার মনসুর যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি পদপ্রার্থী। ছাত্র জীবন থেকে তিনি আওয়ামী রাজনীতির সাথে জড়িত ছিলেন এবং জননেত্রী শেখ হাসিনার একজন আস্থাভাজন হিসাবে তিনি পরবর্তীতে মেট্রো ওয়াশিংটন আওয়ামী লীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন।
এছাড়া ড. খন্দকার মনসুর ২০১১ সালে গঠিত যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি পদেও আগ্রহী ছিলেন। এ নিয়ে তখন তিনি বেশ দেন দরবারও করেন এবং সম্ভাব্য প্রার্থী তালিকায় তার নামও ছিল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত জননেত্রী শেখ হাসিনা ড. সিদ্দিকুর রহমানকে সভাপতি পদে ঘোষনা করেন। এবার আবারো ড. খন্দকার মনসুর যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি পদে তার আগ্রহের কথা ব্যক্ত করেছেন। তিনি বলেন, আমি আওয়ামী লীগের একজন নিবেদিত প্রান কর্মী। জননেত্রী শেখ হাসিনা চাইলে আমি যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি পদে দায়িত্ব পালন করতে আগ্রহী।
এদিকে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক পদে সম্ভাব্য যোগ্যপ্রার্থী হিসাবে মেট্রো ওয়াশিংটন আওয়ামী লীগের বর্তমান কমিটির জেষ্ঠ্য সহ সভাপতি শিব্বীর আহমেদের নামও শোনা যাচ্ছে। আওয়ামী পরিবারের সন্তান প্রাক্তন ছাত্রলীগ নেতা শিব্বীর আহমেদ পারিবারিক ঐতিহ্য ধারন করেই আজীবন আওয়ামী রাজনীতির সাথে জড়িত আছেন। স্কুল কলেজে ছাত্রলীগের একজন একনিষ্ঠ কর্মী হিসাবে কাজ করে বর্তমানে মেট্রো ওয়াশিংটন আওয়ামী লীগের জেষ্ঠ্য সহ সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন। ২০১২ সালে গঠিত মেট্রো ওয়াশিংটন আওয়ামী লীগের তিনি সভাপতি পদে প্রার্থী ছিলেন।