২৪ দীর্ঘ বছর পর ঝিনাইদহ পৌর আওয়ামী লীগের সম্মেলন কে হচ্ছেন কান্ডারী!

255
gb

ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ
২৪ বছর পর অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ঝিনাইদহ পৌর আওয়ামী লীগের সম্মেলন। সম্মেলনকে ঘিরে উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে নেতাকর্মীদের মাঝে। কাউন্সিলের মাধ্যমে দলের তরুণ নেতাকর্মীরা নতুন নেতৃত্বের প্রত্যাশা করছেন। তবে নবীন ও প্রবীণের সমন্বয়ে নতুন কমিটি গঠিত হবে এমন আশা করছেন দলের বয়োজ্যেষ্ঠ নেতারা। কে হচ্ছেন ঝিনাইদহ পৌর আওয়ামী লীগের নতুন কান্ডারী? এ প্রশ্নকে ঘিরেই সবার আগ্রহ ১লা মার্চের দিকে। সর্বশেষ পৌর আওয়ামী লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছিল ১৯৯৪ সালে। সে সময় ডা. আজিজুর রহমানকে সভাপতি ও এমএ সামাদকে সাধারণ সম্পাদক করে ৪৯ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়। বর্তমান কমিটির মধ্যে মারা গেছেন প্রায় ১০ জন। রাজনীতিতে অনুপস্থিত রয়েছেন আরো প্রায় ১০ জন। ১৯৯৪ সাল থেকে এ পর্যন্ত জেলা আওয়ামী লীগের নেতৃত্ব কয়েক দফা পাল্টালেও কোনো নেতৃত্বই পৌর আওয়ামী লীগের কমিটি গঠন করেননি। ১৯৯৪ সালে পৌর আওয়ামী লীগের কমিটি গঠন করার সময় জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ছিলেন প্রয়াত অ্যাডভোকেট আইয়ুব হোসেন এবং সাধারণ সম্পাদক ছিলেন প্রয়াত মতিয়ার রহমান। ১৯৯৮ সালে আইয়ুব হোসেন সভাপতি ও আব্দুল হাই সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন। ২০০২ সালে জেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা হয়। কমিটিতে মো. আব্দুল হাই এমপিকে আহ্বায়ক ও শফিকুল ইসলাম অপুকে যুগ্ম আহ্বায়ক করা হয়। ২০০৫ সালে সম্মেলনের মাধ্যমে মো. আব্দুল হাই এমপিকে সভাপতি ও অ্যাডঃ. আজিজুর রহমানকে সাধারণ সম্পাদক করে জেলা আওয়ামী লীগের কমিটি গঠন করা হয়। ২০১৬ সালে মো. আব্দুল হাই এমপিকে সভাপতি ও আলহাজ মো. সাইদুল করিম মিন্টুকে সাধারণ সম্পাদক করে জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক কমিটি গঠন করা হয়। ১৯৯৪ সাল থেকে ২০১৬ সাল পর্যন্ত জেলা আওয়ামী লীগের কোনো নেতৃত্বই পৌর আওয়ামী লীগের সম্মেলন নিয়ে ভাবেননি। সর্বশেষ জেলা আওয়ামী লীগের বর্তমান কমিটির সাধারণ সম্পাদক আলহাজ সাইদুল করিম মিন্টু এ উদ্যোগটি গ্রহণ করেছেন। তিনি এ সম্মেলন উপলক্ষে পৌর আওয়ামী লীগের ৯টি ওয়ার্ডের সম্মেলন উৎসবমুখর পরিবেশে সম্পন্ন করেছেন।দীর্ঘদিন পর সম্মেলন হচ্ছে তাই নেতাকর্মীদের মধ্যে উৎসাহ-উদ্দীপনার শেষ নেই। নতুন করে দৌড়ঝাঁপ শুরু হয়েছে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে প্রার্থীদের মধ্যে। সম্ভাব্য প্রার্থীরা নতুন করে দলের নেতাকর্মীদের খোঁজখবর নিচ্ছেন। সম্মেলনকে কেন্দ্র করে শহরে ব্যানার, ফেস্টুন, পৌর এলাকায় সকাল সন্ধ্যা মিছিল, সমাবেশে মুখরিত হয়ে উঠেছে নেতা-কর্মী ও সমর্থকদের মাঝে।পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি পদে এ পর্যন্ত যাদের নাম শোনা যাচ্ছে তারা হলেন-সভাপতি পদে সাবেক জেলা যুবলীগের সভাপতি মো. মাহমুদুল ইসলাম ফোটন বর্তমান কমিটির সাধারণ সম্পাদক এমএ সামাদ, সাধারণ সম্পাদক পদে জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও জেলা ক্রীড়া সংস্থার বর্তমান সাধারণ সম্পাদক জীবন কুমার বিশ্বাস, প্রথম শ্রেণির বিশিষ্ট ঠিকাদার মো. মিজানুর রহমান মাসুম, জেলা ছাত্রলীগ ও জেলা যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলামের ও শ্রী পঞরেশ পোদ্দার। তবে প্রার্থিতা আরো বাড়তে পারে বলে একটি সূত্রে জানা গেছে।দুই যুগ পর অনুষ্ঠিতব্য এ সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য কাজী জাফর উল্লাহ। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব আলম হানিফ এমপি, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান এমপি, সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন এমপি, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন, কার্যনির্বাহী সংসদের সদস্য এস এম কামাল হোসেন, কার্যনির্বাহী সংসদের সদস্য পারভীন জামান কল্পনা। শহরের উজির আলী স্কুল অ্যান্ড কলেজ মাঠে ১লা মার্চ বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় সম্মেলনের উদ্বোধন করবেন ঝিনাইদহ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হাই এমপি। প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখবেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও পৌরসভার মেয়র আলহাজ সাইদুল করিম মিন্টু।