প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষন করে সংসদে এমপি নূরুল হকের গুরুত্বপূর্ণ বক্তব্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জাতীয়করণ, পর্যটন কেন্দ্র স্থাপন ও ধানচাষ বাধ্যতামূলক করতে আইন প্রণয়নের দাবী

281
gb

মোঃ আব্দুল আজিজ, পাইকগাছা, খুলনা \
শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জাতীয়করণ সহ ধান চাষ বাধ্যতামূলক করতে আইনপ্রণয়নের দাবী জানিয়ে প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষন করে সংসদে গুরুত্বপূর্ণ বক্তব্যরেখেছেন খুলনা-৬ পাইকগাছা-কয়রার সংসদ সদস্য আলহাজ্ব এ্যাডঃ শেখ মোঃনূরুল হক। তিনি দশম সংসদের ১৯তম অধিবেশনের সোমবার রাত পৌনে ৯টার দিকেমহামান্য রাষ্ট্রপতির ভাষনের উপর আনিত ধন্যবাদ প্রস্তাবের উপর বক্তব্য রাখেন।নির্ধারিত ১২ মিনিটের বক্তব্যের শুরুতেই তিনি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখমুজিবুর রহমান সহ পরিবারের সকল শহীদ সদস্যদের গভীর শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করেন।এরপর তিনি রাষ্ট্রপতির বক্তব্যে সরকারের সকল উন্নয়ন কর্মকান্ড ও ভবিষ্যৎ পরিকল্পনারবিভিন্ন দিক নির্দেশনা উলে­খ করা হয়েছে মর্মে রাষ্ট্রপতির বক্তব্যের ধন্যবাদ ব্যক্করেন। পরে তিনি তার বক্তব্যে বলেন ১৯৯৬ সালে আওয়ামীলীগ সরকার গঠনেরপর ৫ বছরেনির্বাচিত এলাকা পাইকগাছা-কয়রায় ব্যাপক উন্নয়ন হয়। পরবর্তীতে ২০০৯সালে প্রলয়ংকারী ঘূর্ণিঝড় আইলায় দুই উপজেলার অধিকাংশ এলাকা বিধ্বস্তহওয়ায় সকল উন্নয়ন স্থবির হয়ে পড়ে। তিনি বলেন, এক সময়ের কৃষি অধ্যুষিতএলাকা লবণাক্ততার কারণে আমন ফসল উৎপাদন মারাত্মকভাবে ব্যাহত হচ্ছে। এ কারণেএলাকায় খাদ্য ঘাটতি দেখা দিয়েছে। তিনি ফসল উৎপাদনের জন্য স্লুইচ গেট
সংস্কার ও খালে মিষ্টি পানি সংরক্ষণ করার মাধ্যমে ফসল উৎপাদনের জন্য প্রধানমন্ত্রীরমাধ্যমে পানি উন্নয়ন বোর্ড কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেন। এ সময়তিনি বর্ষা মৌসুমে আমন ফসল উৎপাদনের উপযোগী চিংড়ি ঘের গুলোতে ধাচাষ বাধ্যতামূলক করার জন্য আইন প্রণয়নের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দৃষ্টিআকর্ষন করেন। তিনি কয়রার গোলখালীতে প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্র“ত পর্যটন কেন্দ্রস্থাপন ও বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব, শেখ কামাল, শেখ জামাল, শেখ রাসেল সহকয়েকটি ব্রীজ নির্মাণের দাবী জানান। সংসদে তিনি এলাকার গৃহহীন মানুষেরজন্য গৃহ নির্মাণে নিবিড় প্রকল্প গ্রহণের দাবী জানান। তিনি তার বক্তব্যে আরোবলেন, উপকূলীয় এ জনপদের সাধারণ মানুষের চিকিৎসার জন্য পর্যাপ্ত কমিউনিটিক্লিনিক নেই। পাইকগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ৫০ শয্যায় উন্নীত হলেও ৪/৫
জন ডাক্তার দিয়ে কাঙ্খিত সেবা প্রদান করতে হিমশিম খাচ্ছেন কর্তৃপক্ষ। এ জন্তিনি পর্যাপ্ত জনবল বৃদ্ধি, কমিউনিটি ক্লিনিক স্থাপন ও কয়রা উপজেলা সদরে ২০শয্যার নতুন হাসপাতাল স্থাপনের জন্য জোর দাবী জানান। তিনি তার বক্তব্যের শেষপর্যায়ে বলেন, মানসম্মত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অভাব, অধিক দূরত্ব ও নানাবিধকারণে সময় উপযোগী উচ্চ শিক্ষা থেকে এলাকার শিক্ষার্থীরা পিছিয়ে পড়ছে। এজন্য তিনি পাইকগাছা উপজেলা সদরের ফসিয়ার রহমান মহিলা মহাবিদ্যালয়,কপিলমুনি কলেজ, আরকেবিকে হরিশ্চন্দ্র ইনস্টিটিউট, কপিলমুনি সহচরীবিদ্যামন্দির, ভোলানাথ সুখদা সুন্দরী মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও কয়রার কপোতাক্ষডিগ্রী কলেজ ও খান সাহেব কোমরউদ্দীন ডিগ্রী কলেজ সহ দুই উপজেলারকয়েকটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জাতীয়করণ সহ উন্নয়নের দাবী জানিয়ে এ ব্যাপারেপ্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণে সংসদে উপস্থিত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সদয়দৃষ্টি কামনা করেন।