নবীগঞ্জে ১৪ টি ডাকাতি মামলার প্রধান আসামী গ্রেফতার

25
gb
মোফাজ্জল ইসলাম সজীব,  নবীগঞ্জ ||
নবীগঞ্জে ১৪ টি ডাকাতি মামলার প্রধান আসামীকে গ্রেফতার করেছে নবীগঞ্জ থানা পুলিশ।গতকাল (০৫ আগস্ট) দেবপাড়া বাজার থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।গ্রেফতারকৃত প্রধান আসামী হলো বাউসা ইউনিয়নের কামিরাই গ্রামের মৃত মোজাফফর উল্ল্যা পুত্র আরশ আলী(৩৫)।নবীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আজিজুর রহমানের নেতৃতে ও অপারেশন ওসি আমিনুল ইসলামের পরিচালনায় নবীগঞ্জ থানার একদল পুলিশ তাকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়।পুলিশ সূত্রে জানাযায়,আরশ আলীর নামে নবীগঞ্জ,হবিগঞ্জ,বাহুবল,মৌলভী বাজার থানায় ১৪ ডাকাতি মামলা সহ মামলা দায়ের করা হয়।এরই প্রেক্ষিতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আরশ আলীকে গ্রেফতার করা হয়।সে সিলেট বিভাগের সবকটি জেলাসহ ব্রাম্মণবাড়িয়া,কুমিল্লা অঞ্চলে ডাকাতি কর্মকান্ড করিয়া থাকে।সে তার সঙ্গীয় ডাকাতদের নিয়ে গত ২৩ ফ্রেবরুয়ারী দিবাগত রাতে গত ২৪ ফ্রেবরুয়ারী অত্র মামলার বাদীর বাড়ির বারান্দার গ্রীলের তালা ভাঙিয়া ও দরজা ভাঙিয়া ঘরে ডুকিয়া বাদীকে ধারালো অস্ত্র দ্ধারা কুপিয়ে জখম করে এবং বাদীর পরিবারের অনান্য সদস্যদের খুন,জখমের ভয় দেখিয়ে অস্ত্রেও মুখে তাদেরকে জিম্মি বাদীর ঘরের আলমিরা,ওয়াড্রব,সকেছ ভাঙ্গিয়া বাদীর নামীয় লাইসেন্সকৃত একটি এসবিবিএল বন্দুক যাহার নং (টি-৫২৭৬৯৬)সহ স্বর্ণালংকার ,মোবাইল,নগদ ৩ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা ডাকাতি করে নিয়ে যায়। আরশ আলীর সঙ্গী ডাকাত আজমল আলীর পুত্র নজির মিয়া (৩০) কে গত ২৮ ফ্রেবরুয়ারী গ্রেফতার করে জিজ্ঞাসাবাদ করলে স্বীকাররোক্তিমূলক জবানবন্দিতে বলে ডাকাতির মূল পরিকল্পনাকারী হিসেবে উক্ত আরাশ আলীর নাম প্রকাশ করে।এ ব্যাপারে নবীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আজিজুর রহমান বিষয়ের সত্যতা নিশ্চত করে বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তাকে গ্রেফতার করা হয়।গ্রেফতার কৃত আরশ আলীকে হবিগঞ্জ কোর্টে প্রেরন করা হয়।