মৌলভীবাজারের জুড়ীতে রাতের আঁধারে জায়গা দখলের অভিযোগ

32

জিবিনিউজ 24 ডেস্ক //

মৌলভীবাজারের জুড়ীতে রাতের আঁধারে জায়গা দখলের অভিযোগ পাওয়া গেছে। শনিবার (২৫ জুলাই) বিকালে উপজেলার জায়ফরনগর ইউনিয়নের কালিনগর গ্রামে সংবাদ সম্মেলনে এমন অভিযোগ করেন এনে ময়না মিয়া।

বৃদ্ধ ময়না মিয়া বলেন, ২৪ জুলাই ১৯৮৭ সালে চাচাতো ভাই আইয়ুব আলীর নিকট থেকে রেজিস্ট্রি দলিল (নং ৭৬০৪) মূল্যে ১৫ শতক টিলা রকম জায়গা কিনে ভোগদখলে আছি। শুক্রবার (২৪ জুলাই) রাত ১ টার দিকে প্রতিবেশী ফয়াজ মিয়া এ জায়গা দখল করে অস্থায়ী কাঁচা ঘর তৈরি করেন। ফয়াজ মিয়া জনৈক আব্দুল্লাহর নিকট থেকে এখানে জায়গা কেনার কথা বলছেন। আব্দুল্লাহর জায়গা অন্য কোথাও থাকতে পারে। কিন্তু প্রতারণার আশ্রয় নিয়ে দলিলে আমার জায়গার তফসীল বর্ণনা করেন। ময়না মিয়া এ বিষয়ে ন্যায় বিচার কামনা করেন।

এ বিষয়ে ফয়াজ মিয়া বলেন, ২০১৮ সালে গোয়ালবাড়ী ইউনিয়নের আব্দুল্লাহর নিকট থেকে ৩ লাখ টাকায় আমার স্ত্রী আছমা বেগমের নামে আব্দুল্লাহর নিকট থেকে এখানে ৩.৬৯ শতক জায়গা কিনি। আব্দুল্লাহ এই জায়গা আমাকে দেখিয়ে বিক্রি করেন কিন্তু তিনি আমাকে মালিকানা বুঝিয়ে দেননি। আমি দীর্ঘ প্রায় ১৮ মাস অপেক্ষা করে রাতের বেলা ওই জায়গায় একটি ঘর তৈরি করি। এটা আমি ভুল করেছি। আব্দুল্লাহ আমার সাথে প্রতারণা করেছেন। আমি টাকা দিয়ে ভেজাল ক্রয় করলাম।

জানতে চাইলে মোবাইল ফোনে আব্দুল্লাহ বলেন, আমি সেখানে যাই না। আছমার নিকট কাগজ বিক্রি করেছি। জায়গা সমঝিয়ে দেইনি।

সংবাদ সম্মেলনে স্থানীয় পঞ্চায়েত সভাপতি জমির আলী, সাবেক সম্পাদক কাছিম আলী, ক্যাশিয়ার মকদ্দছ আলী, ইদ্রিস মিয়া, ইদ্রিস আলী, মুহিব মিয়া, বাবুল মিয়া,দেলোয়ার হোসেন, উস্তার মিয়া, ফারুক মিয়া, শাহীন আহমদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।