নবীগঞ্জে সরকারের অর্থ সহায়তার তালিকায় নারী কাউন্সলরের পরিবারের ৬ সদস্যের নাম

93
gb
1
নবীগঞ্জ প্রতিনিধি ::
নবীগঞ্জে চলমান করোনাভাইরাসের সংকটে সরকারি সহায়তার জন্য তালিকা তৈরিতে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে এক নারী কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে। সেই তালিকায় নিজের স্বামী, ভাই, ভাবি ও তাদের মেয়ে নামসহ ৬ জন আত্মীয়ের নাম দিয়েছেন তিনি।
নবীগঞ্জ পৌরসভার ৪, ৫ ও ৬  নম্বর ওয়ার্ডের সংরক্ষিত নারী কাউন্সলর কর্তৃক তৈরীকৃত সরকারি ত্রাণ সহায়তার অগ্রাধিকার তালিকায় এই চিত্র পাওয়া গেছে। এই তালিকা তৈরি করেছেন নারী কাউন্সলর রোকেয়া বেগম।
এমন অভিযোগ তুলে নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার বরাবরে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন এক দরিদ্র লোক।
পৌরসভার ৫ নং ওয়ার্ড হরিপুর গ্রামের বাসিন্দা রমিজ উল্লাহ তার লিখিত অভিযোগে উল্লেখ করেন- ওই ওয়ার্ডের নারী কাউন্সিলর রোকেয়া বেগম তার নিজ পরিবারের ৬ জনের নাম তালিকায় অন্তর্ভূক্ত করেছেন এবং সরকারের এই অর্থ সহায়তার সুবিধা ভোগ করেছেন।
তালিকায় অন্তর্ভূত নামগুলোর মধ্যে রয়েছেন- তার স্বামী রাজু আহমেদ, তার মেয়ে রুবি বেগম, আপন ভাতিজি মেহের জাহান আক্তার, ভাবী জামিনা বেহম, ভাই রুবেল মিয়া, ভাবী হালেমা। তারা সবাই একই পরিবারের সদস্য।
রমিজ উল্লাহ তার লিখিত অভিযোগে উল্লেখ করেন- তাদের ওয়ার্ডের অনেক কর্মহীন অসহায় গরীব পরিবার থাকার পরও নারী কাউন্সলরের একি পরিবারের ৬ টি নাম অন্তর্ভূত করায় এলাকাবাসীর মধ্য তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। অনিয়মের অভিযোগটি দ্রুত তদন্ত করে যথাযত আইনী পদক্ষেপ গ্রহন করতে প্রশাসনের প্রতি আবেদন জানান এলাকাবাসী।
অভিযোগের প্রেক্ষিতে বক্তব্য নিতে কাউন্সিলর রোকেয়া বেগমের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করেও বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি।
এ ব্যাপারে নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিশ্বিজত কুমার পালের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন- ‘বিষয়টি তিনি শুনেছেন, অভিযোগ তদন্ত করে প্রমানিত হলে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন তবে আপনি চাইলে অপ্ট-আউট করতে পারেন Accept আরও পড়ুন