খালাস পাওয়া মিজানের বিরুদ্ধে আপিল করা হবে: আইজিপি  ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী

136
gb
মো:নাসির, জিবি নিউজ ২৪
হোলি আর্টিজান বেকারিতে জঙ্গি হামলা ও নৃশংস হত্যাযজ্ঞের ঘটনায় করা মামলার রায়ে এক আসামি খালাস পেয়েছেন। সে ব্যাপারে পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী বলেছেন, ওই আসামির বিষয়ে পুলিশ আপিল করবে। এ ছাড়া রায়ে তাঁরা সন্তুষ্ট বলে জানান।
আজ বুধবার দুপুরে কাবাডি ফেডারেশনের এস এ গেমসের জন্য পুরুষ ও নারী দলের নাম ঘোষণার অনুষ্ঠানে আইজিপি এক প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন। তিনি বাংলাদেশ কাবাডি ফেডারেশনের সভাপতি।

তিন বছর আগে হোলি আর্টিজান বেকারিতে জঙ্গি হামলা ও নৃশংস হত্যাযজ্ঞের ঘটনায় করা মামলার রায় আজ ঘোষণা করেছেন ঢাকার সন্ত্রাসবিরোধী বিশেষ ট্রাইব্যুনাল। রায়ে ৮ আসামির মধ্যে ৭ জনকে মৃত্যুদণ্ড ও একজনকে খালাস দিয়েছেন আদালত। ফাঁসির দণ্ড পাওয়া সাত আসামি হলেন রাকিবুল ইসলাম রিগ্যান ওরফে রাফিউল ইসলাম, রাজীব গান্ধী ওরফে জাহাঙ্গীর আলম, মোহাম্মদ আসলাম হোসেন ওরফে র‍্যাশ, আবদুস সবুর খান ওরফে সোহেল মাহফুজ, মোহাম্মদ হাদিসুর রহমান সাগর ওরফে সাগর, মামুনুর রশিদ রিপন ও শরিফুল ইসলাম খালেদ। আর খালাস পেয়েছেন মিজানুর রহমান ওরফে বড় মিজান।

মিজানুর রহমান ওরফে বড় মিজানের খালাস বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী বলেন, এ রায়ে তাঁরা সন্তুষ্ট। কিন্তু যে আসামি খালাস পেয়েছেন তাঁর বিষয়ে আপিল করবে পুলিশ।

২০১৬ সালের ১ জুলাই হোলি আর্টিজান বেকারিতে ভয়ংকর জঙ্গি হামলা স্তম্ভিত করেছিল পুরো বাংলাদেশকে। ২০১৮ সালের ২৬ নভেম্বর অভিযোগ গঠনের মধ্য দিয়ে এই হামলা মামলার বিচারকাজ শুরু হয়। গত এক বছরে রাষ্ট্রপক্ষ এই হামলা মামলায় ১১৩ জন সাক্ষী হাজির করেছে। তাদের মধ্যে ছিলেন নিহত পুলিশ সদস্যদের স্বজন, হামলা প্রতিহত করতে গিয়ে আহত পুলিশ, হোলি আর্টিজান বেকারির মালিক ও কর্মী, জিম্মি হয়ে পড়া অতিথি এবং যেসব বাড়িতে আস্তানা গেড়ে জঙ্গিরা নৃশংস এই হামলার প্রস্তুতি নিয়েছিলেন, সেসব বাড়ির মালিকেরা।