ঢাকার দর্শকেরা হৃদয় দিয়ে সঙ্গীত অনুভব করে : হিনা নাসরুল্লাহ

জিবি নিউজ ২৪ ডেস্ক//

আসসালামু আলাইকুম, কেমন আছেন আপনারা? মঞ্চে উঠেই দর্শক শ্রোতাদের উদ্দেশ্যে সালাম প্রদান করেন, এর কুশল জানতে চেয়ে উর্দুতে শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন হিনা নাসরুল্লা।

রাত ১০টা ৪০ মিনিটে মঞ্চে ওঠেন হিনা নাসরুল্লাহ।

হিনা গান গাওয়ার আগে ঢাকার দর্শকদের প্রশংসা করেন। তিনি বলেন, আমি জেনে এসেছি আপনারা সত্যিকার শ্রোতা, আপনারা হৃদয় দিয়ে সঙ্গীত শ্রবণ করে। যেটা সত্যি আনন্দের ও ভালো লাগার।

দেশের লোক গান বিশ্ব দরবারে ছড়িয়ে দেওয়ার লক্ষ্যে সান ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ২০১৫ সাল থেকে প্রতিবছর আয়োজিত হয়ে আসছে এশিয়ার সবচেয়ে বড় লোকসংগীতের উৎসব ‘ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ফোক ফেস্ট’।

এই উৎসবের পঞ্চম আসরের পর্দা উঠেছে গতকাল ১৪ নভেম্বর। আজ ফোক ফেস্টের দ্বিতীয় দিন।

বাংলাদেশের শরিফুল ইসলাম, কামরুজ্জামান রাব্বি ও কাজল দেওয়ান, মালিয়ান লোকসংগীতের জীবন্ত কিংবদন্তি হাবিব কইটের গান যখন গাইছিলেন তখন রাত সাড়ে ৯টা পেরিয়ে গেছে। এ সময় মঞ্চে ওঠেন ফকির শাহাবুদ্দিন। গলায় গামছা ও শরীরে সাদা পাঞ্জাবি। সঙ্গে তার দল।

ফকির শাহাবুদ্দিন পুরো আর্মি স্টেডিয়াম জমিয়ে দেন। তৃষ্ণার্ত দর্শক-শ্রোতাদের একের পর হৃদয়গ্রাহী গান গেয়ে আলোড়িত করেন।

এ সময় তিনি দে দে পাল তুলে দে যাব মদীনায়, শ্রী কৃষনে প্রেমের গান, রইয়াছো ঘুমাইয়া, আমারে আসিবার কথা কইয়া, বন্দে মায়া লাগাইছেসহ শ্রোতাপ্রিয় গান গেয়ে পুরো স্টেডিয়ামকে নিজের সুরের সঙ্গে মাতিয়ে তোলেন।

প্রতিদিন সন্ধ্যা ৬টা থেকে শুরু হয়ে উৎসব চলছে রাত ১২টা পর্যন্ত। বাংলাদেশসহ ছয় দেশের দুই শতাধিক শিল্পী অংশ নিচ্ছে এবারের উৎসবে। ২০১৫ সাল থেকে প্রতিবছর অনুষ্ঠিত হচ্ছে ‘ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ফোকফেস্ট’। শনিবার শেষ হ‌বে এবারের উৎসব।

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন তবে আপনি চাইলে অপ্ট-আউট করতে পারেন Accept আরও পড়ুন