ক্যাসিনো ডন সেলিমের বাসা ও অফিসে যা যা পাওয়া গেল-

-বিশেষ প্রতিনিধি জিবি নিউজ ২৪-

র‌্যাবের দীর্ঘ অভিযানে ক্যাসিনো ডন সেলিম প্রধানের বাসা ও কার্যালয় থেকে বিপুল অর্থ, বিদেশি মুদ্রা, চেক ও অনলাইন ক্যাসিনোর সার্ভার জব্দ করা হয়ছে। গতকাল রাত থেকে শুরু হয়ে আজ বিকাল পর্যন্ত চলা অভিযান শেষে বিস্তারিত জানান র‌্যাব-২ এর অধিনায়ক সারোয়ার বিন কাশেম। তিনি বলেন, অভিযানে ৪০ বোতল বিদেশী মদ, ২৩ দেশের ৭৭ লাখ টাকা মূল্যের মুদ্রা, ৮ কোটি টাকার চেক, দুটি হরিণের চামড়া, নগদ ২১ লাখ ২০ হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়েছে। গত রাতে প্রথমে গুলশানের ৯৯ নম্বর সড়কের ১১নম্বর বাড়ির চতুর্থ তলায় সেলিমের অফিসে অভিযান শুরু করে র‌্যাব। ওই অফিস থেকেই অনলাইন ক্যাসিনো পরিচালনা করা হতো।              সেখান থেকে ক্যাসিনোর সার্ভার ও ল্যাপটপ জব্দ করা হয়। পরে আজ সকালে বনানীর ২ নম্বর রোডের ৬ নম্বর বাড়িতে অভিযান চালায় র‌্যাব। ওই বাড়ির ২টি ফ্ল্যাট নিয়ে থাকেন সেলিম প্রধান।

র‌্যাব কর্মকর্তা জানান, একাধিক গেটওয়ের মাধ্যমে সেলিম অনলাইন ক্যাসিনোর টাকা সংগ্রহ করে তা ব্যাংকে জমা রাখতেন। পরে তা বিদেশে পাচার করা হতো। যে কোরীয় নাগরিকের নাম বলেছেন সে ৫০ ভাগ ব্যবসায়ীল পার্টনার। তিনি জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সেলিম জানিয়েছেন, ১৯৮৮ সালে সে বড় ভাইয়ের মাধ্যমে জাপান চলে যান। সেখানে একজন থাই ও একজন কোরীয় নাগরিকের সঙ্গে পরিচয় হয়। কোরীয় নাগরিকের মাধ্যমেই তিনি অনলাইন ক্যাসিনো ব্যবসায় নামেন। জিজ্ঞাসাবাদে সেলিম দাবি করে, ব্যবসায়ী গিয়াস উদ্দিন আল মামুনকে বিএমডব্লিউ গাড়ি উপহার দিয়েছিলেন। র‌্যাব কর্মকর্তা জানান, সেলিমের বিরুদ্ধে মানিলন্ডারিং, বন্য প্রাণী সংরক্ষণ আইন ও মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা হবে।

 

অনলাইন ক্যাসিনো চালানোর অভিযোগে গতকাল থাই এয়ারওয়েজের একটি ফ্লাইট থেকে সেলিম প্রধানকে আটক করে র‌্যাব। আটকের পর তাকে নিয়ে অভিযান শুরু হয়।

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন তবে আপনি চাইলে অপ্ট-আউট করতে পারেন Accept আরও পড়ুন