২৪ ঘন্টায় ডেঙ্গু আক্রান্ত হওয়ার সর্বোচ্চ রেকর্ড

155

জিবি নিউজ 24 ডেস্ক//

শনিবার সকাল ৮টা থেকে রবিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘন্টায় ডেঙ্গু নিয়ে সারাদেশে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন এক হাজার ৮৭০ জন। এটাকে রেকর্ড সংখ্যক বলছেন, সংশ্লিষ্টরা। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন্স সেন্টার ও কন্ট্রোল রুম থেকে এ তথ্য পাওয়া গেছে। এর আগে ১ আগস্ট ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ রোগী ভর্তি ছিল ১ হাজার ৭১২ জন।

এসব রোগীর মধ্যে ঢাকায় এক হাজার ৫৩ জন এবং সারাদেশে ৮১৭ জন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। এ হিসেবে ঢাকা ও গ্রামে প্রায় সমান পরিমাণ মানুষ আক্রান্ত হচ্ছেন।

ঢাকাকেন্দ্রিক এই রোগটির আতঙ্ক এখন সর্বত্রই ছড়িয়ে পড়েছে। রবিবারও দেশের বিভিন্ন স্থানে ছয়জনের মৃত্যু হয়েছে। চলতি বছর আক্রান্তের সংখ্যা ২৫ হাজার ছুঁইছুঁই করছে। রবিবার চলতি বছরে এক দিনে রেকর্ড সংখ্যক রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমারজেন্সি অপারেশন্স সেন্টার অ্যান্ড কন্ট্রোল রুমের তথ্য অনুযায়ী, চলতি বছর এ পর্যন্ত সারাদেশে ২৪ হাজার ৮০৪ জন আক্রান্ত হয়েছেন। তাদের মধ্যে রাজধানীতে ১৯ হাজার ৮১ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এ ছাড়া সারাদেশে ৫ হাজার ৭২৩ জন আক্রান্ত হয়েছেন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হিসেব এ পর্যন্ত মাত্র ১৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। তবে বিভিন্ন হাসপাতাল সূত্র বলছে, রবিবার আরও ছয়জনের মৃত্যু হয়েছে।

রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে পুলিশের অতিরিক্ত মহাপরিদর্শক শাহাবুদ্দীন কোরেশীর স্ত্রী সৈয়দা আক্তার, মিটফোর্ড হাসপাতালে শেফালী বেগম এবং ঢাকা শিশু হাসপাতালে আলভী নামে এক শিশু, জাপান-বাংলাদেশ ফ্রেন্ডশিপ হাসপাতালে ইডেন কলেজের ছাত্রী শান্তা নামে একজন, খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মর্জিনা বেগম ও রূপসা উপজেলায় মঞ্জুর শেখের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা ৬৮ জনে দাঁড়াল।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন্স সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের তথ্য অনুযায়ী, সরকারি হাসপাতালের মধ্যে ডেঙ্গু আক্রান্ত সবচেয়ে বেশি রোগী ঢাকা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। রোববার বিকেল ৫টা পর্যন্ত ঢামেক হাসপাতালে দুই হাজার ৯২৮ জনের মধ্যে ৬৯৭ রোগী ভর্তি ছিলেন। মিটফোর্ডে ৪২৮ জন, ঢাকা শিশু হাসপাতালে ১৪৮ জন, সোহরাওয়ার্দীতে ৩৬৯ জন, হলি ফ্যামিলিতে ৭৪ জন, বারডেমে ৬৩ জন, বিএসএমএমইউতে ১৬৩ জন, পুলিশ হাসপাতালে ১৪৫ জন, মুগদা হাসপাতালে ৩৮০ জন, বিজিবি হাসপাতালে ২৮ জন, সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে ১৮৩ জন, কুর্মিটোলায় ৩১৯ জন ভর্তি রয়েছেন। এ ছাড়া ৩৬ বেসরকারি হাসপাতালে এক হাজার ৮৭২ জন চিকিৎসাধীন আছেন।

ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হযে রাজধানীর বাইরে ঢাকা বিভাগের বিভিন্ন জেলায় ৪৪৩ জন, ময়মনসিংহ বিভাগে ২৬৪ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে ৪১৬ জন, খুলনা বিভাগে ৪২১ জন, রাজশাহী বিভাগে ৩৪২ জন, রংপুর বিভাগে ২১৫ জন, বরিশাল বিভাগে ২২৯ জন এবং সিলেট বিভাগে ৯৯ জন জেলা ও উপজেলার বিভিন্ন সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন