মৌলভীবাজার সাটিয়ায় ওরসের নামে গাঁজার আসর

বেশ কিছু তাবু টানিয়ে নারী-পুরুষ সহ শতাধিক মানুষ জিকিরের নামে চলাচ্ছে প্রকাশ্যে গাঁজা সেবন

93
বিশেষ প্রতিনিধি ||
 মৌলভীবাজার সদর উপজেলার সাটিয়ায় হয়রত মদরীছ শাহ (রঃ) এর ওরস মোবারক শুরু হয়েছে ৷ প্রতি বছরের ন্যায় এ বছরেও তিন দিন ব্যাপী এ ওরস চলবে ৷ ২ রা মার্চ থেকে শুরু হওয়া এ ওরস চলবে ৪ মার্চ পর্যন্ত ৷
ওরস উপলক্ষে এলাকায় উৎসব মুখর পরিবেশ তৈরী হয়েছে ৷ দুর-দুরান্ত থেকে হাজার হাজার মানুষ আসছেন ওরসে ৷ চলছে বাউল গানের আসর ৷ কিন্তু হযরত মদরীছ শাহের মাজার প্রাঙ্গনের সামান্য দুরে খোলা মাঠে বেশ কিছু তাবু টানিয়ে নারী-পুরুষ সহ শতাধিক মানুষ জিকিরের নামে চলাচ্ছে প্রকাশ্যে গাঁজা সেবন ৷ যা এলাকার সুশীল সমাজকে বিব্রতকর পরিস্থিতির মধ্যে ফেলে দিয়েছে ৷
সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, ওরস উপলক্ষে মাজারের অদুরে খোলা মাঠে শত শত দোকান পসরা সাজিয়ে বসেছে দোকানীরা এবং হাজার হাজার নারী পুরুষ ক্রেতা সাধারণের ভীড় ৷ খাবার, খেলনা, কাপড়ের দোকান সহ নিত্য প্রয়োজনীয় বিভিন্ন পন্যের পসরা সাজিয়ে বসেছেন দোকানীরা এবং এসব দোকান সমুহে হাজারো ক্রেতার ভীড় ৷ এসব দোকানের অদুরে দিনার পুর মিছকিন শাহ( রঃ) এর মাজার সহ বিভিন্ন মাজার থেকে আসা শতাধিক সাধু সন্যাসী বেশী ব্যক্তি জিকিরের নামে ছোট ছোট তাবু তৈরী করে প্রকাশ্যে গাঁজা সেবন করছে ৷ মাজার এলাকা গাঁজার দুর্গন্ধে ভারী হয়ে উঠেছে ৷ এসব সাধুবেশী ভন্ডদের সাথে অনেক উঠতি বয়সী লোকেরাও গাঁজা সেবন করছে বলে অভিযোগ করেন নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক স্হানীয় ব্যক্তি ৷ এখানে কোন রুপ ছবি বা ভিডিও ধারণ করতে দেওয়া না হলেও গোপন ক্যামেরায় প্রতিনিধির তোলা ছবিতে গাঁজা সেবনের চিত্র ধরা পড়েছে ৷ নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক ব্যক্তি বলেন সরকার যেখানে মাদকের উৎপাত বন্ধ করার লক্ষ্যে জিরো টলারেন্স নীতি অবলম্বন করছেন সেখানে পুলিশ প্রশাসন ও মাজার ও মেলা উদযাপন কমিটির চোখের সামনে কিভাবে এই রম-রমা গাঁজা সেবন চলছে তা তাদের বোধগম্য নয় ৷ এতে করে এলাকার যুব সমাজ বিপদগামী হবে এবং মাদকাসক্ত হবার সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানান তারা ৷ ভবিষ্যৎ এ যেন এ ধরনের ওরস উপলক্ষে এ ধরনের অবৈধ ও অনাকাঙ্খিত ঘটনা না ঘটতে পারে এজন্য মাজার ও ওরস উদযাপন কমিটি ও স্হানীয় প্রশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করেন তারা ৷
মন্তব্য
Loading...