২৬ শিক্ষক ৩ মাস থেকে বেতন ভাতা না পাওয়ায় মানবেতর জীবন যাপন

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল,গাইবান্ধা ||

গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার ভূরারঘাট এম.ইউ বহুমুখী ফাজিল (ডিগ্রী) মাদ্রাসার অধ্যক্ষ ও ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষের দ্বন্দ্বের কারণে ২৬ শিক্ষক-কর্মচারী ৩ মাস থেকে বেতন ভাতা না পাওয়ায় মানবেতর জীবন যাপন করছেন।

জানা গেছে, ওই মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা আজিজার রহমানকে মাদ্রাসার গভর্নিং বডি সাময়িক বরখাস্ত করে মাওলানা এম সাখাওয়াত হোসেনকে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষের দায়িত্ব দেয়। আজিজার রহমান উচ্চ আদালতে মামলা দায়ের করলে মহামান্য আদালত তাকে স্বপদে বহালসহ যাবতীয় বেতন ভাতা প্রদানের নির্দেশ দেয়। এদিকে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মহামান্য আদালতের আদেশকে উপেক্ষা করে দায়িত্ব পালন করতে থাকে।

এ অবস্থা চলতে থাকায় অধ্যক্ষ ও ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ আলাদা আলাদা ভাবে ওই মাদ্রাসার ২৬ শিক্ষক-কর্মচারীর সরকারি বেতন ভাতার অংশ অনুমোদনের জন্য বর্তমান সভাপতি ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সোলেমান আলীর নিকট দাখিল করেন। এদিকে সভাপতি গত নভেম্বর মাস থেকে জানুয়ারী পর্যন্ত ৩ মাসের বেতন ভাতার বিল অনুমোদন না দেয়ায় ২৬ শিক্ষক-কর্মচারী পরিবার পরিজন নিয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছেন।

এ ব্যাপারে আজিজার রহমান জানায়, আমি আইনগতভাবে আদেশপ্রাপ্ত হয়ে ওই মাদ্রাসার অধ্যক্ষের দায়িত্ব ফিরে পেয়ে বিল দাখিল করেছি। এ নিয়ে সভাপতি ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সোলেমান আলী গত ৩ মাস থেকে শিক্ষক-কর্মচারীরা বেতন ভাতা না পাওয়ার বিষয়টি স্বীকার করে জানান, অধ্যক্ষ ও ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ আলাদাভাবে শিক্ষক-কর্মচারীদের বেতন ভাতার বিল দাখিল করেছেন। কাগজপত্র পর্যালোচনা করে দাখিলকৃত বেতন ভাতার বিল অনুমোদন দেয়া হবে।

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন তবে আপনি চাইলে অপ্ট-আউট করতে পারেন Accept আরও পড়ুন