প্রার্থীতা ঘোষণায় আলোচনার হিট লিষ্টে সাংবাদিক আশরাফুল ইসলাম জয় শতভাগ নিশ্চিত

91

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল,গাইবান্ধা ||

গাইবান্ধা জেলার পলাশবাড়ী উপজেলা পরিষদের নির্বাচনে ভাইস চেয়ারম্যান পদে লিফলেট, পোষ্টার, ব্যানার বিহীন নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দিতার ঘোষণা দিয়ে উপজেলার সবকয়টি ইউনিয়নের গ্রাম গুলোতে যেমন আলোচনার ঝড় উঠেছে তেমনি জেলা জুড়েও চলছে নানা আলোচনা সাংবাদিক আশরাফুল ইসলাম কে নিয়ে। গাইবান্ধা জেলায় ফেসবুকের পাতায় হিট লিষ্টে সাংবাদিক আশরাফুলকে নিয়ে তার ভক্ত বন্ধু স্বজনরা তার নির্বাচন ভাইরালে রুপা নিয়েছে। অনেক হিশাপ নিকাম যোগ বিয়েগ কওে নির্বাচনের আগেই তাকে শতভাগ বিজয়ী হিসাবে দেখছেন তারা। তিনি আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দিতায় এ প্রচার প্রচারণার ঘোষণা করায় বর্তমানে আলোচনার শীর্ষে রয়েছেন। পলাশবাড়ী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের প্রাচারে সদা হাস্যজ্জল তরুন সুদর্শন অবিবাহিত আশরাফুল ইসলাম ফেসবুকে ফেমাস হয়ে উঠেছেন
তার সমর্থক ও শুভাকাংঙ্খীদের মাঝে প্রানচা লতা যেমনি বৃদ্ধি পেয়েছে তেমনি উপজেলা তরুন নতুন ভোটারদের পছন্দের প্রার্থী হিসাবে ব্যাপক ভাবে সারা পাচ্ছেন এই প্রার্থী রয়েছেন আলোচনায় শীর্ষে।
এ উপজেলার সর্বস্তরের নারী পুরুষ ভোটাররা সাংবাদিক আশরাফুল ইসলাম কে নিজেদের ভোট দিয়ে জয়ী করতে একে অপরের নিকট দোয়া ও সমর্থণ কামনা করছেন।
সাংবাদিক আশরাফুল ইসলাম জানান,আমি নিজেও একজন তরুন এ নির্বাচনে ভাইস চেয়ারম্যান হিসেবে প্রার্থীতা ঘোষণা করেছি। আপনারা জানেন দীর্ঘ দিন হলো আমি এ উপজেলা ও জেলায় বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক, সাংবাদিকদের সংগঠনের সাথে সম্পৃত থাকার পাশাপাশি ছাত্রলীগের রাজনীতির মধ্যদিয়ে বর্তমান আওয়ামীলীগের একজন সক্রিয় সদস্য। যদিও ভাইস চেয়ারম্যান নিদলীয় হবে তবুও আমি আশা করি এ নির্বাচনে দল আমাকে মুল্যায়ন করে সমর্থণ দিবে। উপজেলা সকল বয়সের ভোটারদের যেভাবে সারা পাচ্ছি ইন্নশাআল্লাহ আমার জয় শতভাগ সুনিশ্চিত।

উল্লেখ্য,আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভাইস চেয়ারম্যান পদে লড়তে প্রস্তুত পলাশবাড়ী উপজেলার সদরের কৃতি সন্তান প্রেসক্লাব গাইবান্ধার সাধারণ সম্পাদক ও পলাশবাড়ী রিপোর্টাস ইউনিটির সভাপতি, আনন্দটিভি জেলা প্রতিনিধি, জেলা সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক গণজাগরণখ্যাত নেতা ও বিশ্ব সন্ত্রাস বিরোধী সংগঠন অটো গাইবান্ধা জেলা শাখার সহ সভাপতি সাংবাদিক আশরাফুল ইসলাম। তিনি দীর্ঘ দিন ধরে জেলা ও উপজেলা জুড়ে সামাজিক বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড ও জনসচেতনতা সৃষ্টি করে যাচ্ছেন। জয় পরাজয়ে তিনি অন্যতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী । এ নির্বাচনে তার জয়ের ব্যাপারে সর্মথক ও শুভাকাংঙ্খীগণ শতভাগ আশাবাদী। নতুন ও তরুন ভোটাররা আমাকে ভোট দিবেন বলে তারা আমার কাছে তাদেও মনের কথা ব্যক্ত করেছেন।

মন্তব্য
Loading...