২৬ মার্চের মধ্যে মুক্তিযোদ্ধাদের পূর্ণাঙ্গ তালিকা

শিগগিরই জিয়ার মাজার সরিয়ে নেয়া হবে

মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী

103
gb

আগামী ২৬ মার্চের মধ্যে মুক্তিযোদ্ধাদের পূর্ণাঙ্গ তালিকা প্রকাশ করা হবে বলে জানিয়েছেন মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক। শনিবার সকালে গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার আন্দারমানিক আবদুল্লাহ মডেল পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে তিনি সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, খুব শিগগিরই সংসদের পাশ থেকে জিয়ার মাজার সরিয়ে নেয়া হবে। কারণ সেটা সংসদের জায়গা। সংসদ ভবনের যে আসল নকশা ছিল সেটা সংগ্রহ করা হয়েছে। সেটা অনুসারে যা থাকার কথা সেগুলো থাকবে, আর যা থাকার কথা নয়- সেগুলো থাকবে না।

মন্ত্রী বলেন, আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আসা না আসা বিএনপির ব্যাপার। মানুষ প্রত্যাশা করে যে, সব রাজনৈতিক দল অংশগ্রহণ করুক। যদি নির্বাচনে অংশগ্রহণ না করে তারা হারিয়ে যাবে। পরে বাটিচালান দিয়েও তাদের খুঁজে পাওয়া যাবে না। উপজেলা নির্বাচনে যদি কেউ না আসে তাহলেও নির্বাচন বন্ধ থাকবে না। আবার নির্বাচনে কারও অংশগ্রহণও বন্ধ থাকবে না। নির্বাচনের সময় দেখা যাবে, কিভাবে অংশগ্রহণমূলক ও প্রতিযোগিতামূলক নির্বাচন হয়।

নিজের দলের (আওয়ামী লীগ) বিদ্রোহী প্রার্র্থীদের ব্যাপারে আগাম সতর্ক করে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগের বাইরে গিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হলে দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের জন্য কেন্দ্রীয় কমিটি কঠোর ব্যবস্থা নেবে। সে ব্যাপারে সুস্পষ্ট নিদের্শনা কেন্দ্র থেকে আসবে, যার কারণে দলের বাইরে গিয়ে বিদ্রোহী প্রার্র্থী হওয়ার কোনো সুযোগ নেই।

মন্ত্রী দুপুরে উপজেলার লতিফপুর এলাকায় আফাজউদ্দিন মেমোরিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজের নবীনবরণ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানেও প্রধান অতিথি হিসেবে যোগ দেন। আবদুল্লাহ মডেল পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজের অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ওই প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি সাংবাদিক সরকার আবদুল আলীম। বক্তব্য রাখেন- উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুরাদ কবীর, চেয়ারম্যান লোকমান হোসেন, আবদুল্লাহ মডেল পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজের প্রতিষ্ঠাতা ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক সাংবাদিক আলহাজ শোয়াইব মৃধা।

অপর অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন আফাজউদ্দিন মেমোরিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজের চেয়ারম্যান আলহাজ জলিল উদ্দিন। ওই কলেজের নবীনবরণ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. মো. আলাউদ্দিন, কালিয়াকৈর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম, কালিয়াকৈর থানার ওসি আলমগীর হোসেন মজুমদার, পৌরসভার মেয়র মজিবুর রহমান প্রমুখ।

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন তবে আপনি চাইলে অপ্ট-আউট করতে পারেন Accept আরও পড়ুন